পেসারদের ভিড়েও সফল আদিল

শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০১৯

খেলা প্রতিবেদক : দ্বাদশ বিশ^কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে গতকাল অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয় স্বাগতিক ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ম্যাচ মানেই ২২ গজে বিশ^সেরা পেসারদের গতির ঝড়। এর কারণ দুটি দলেই আছেন দুর্দান্ত সব পেসার। জোফরা আরচার, মার্ক উড, ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাঙ্কেট ও বেন স্টোকসের মতো বিধ্বংসী পেসাররা রয়েছেন ইয়ন মরগানের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ডে। এবারের আসরের অধিকাংশ ম্যাচেই ৫ পেসার নিয়ে খেলেছে ইংলিশরা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালের লড়াইয়েও এর ব্যতিক্রম হয়নি। গতকালের ম্যাচেও পাঁচজন পেসার নিয়েই অজি বধের লক্ষ্যে মাঠে নামে স্বাগতিকরা। মঈন আলিকে বিশ্রামে রেখে এদিন মাত্র একজন স্পিনার নিয়েই খেলতে নামে ইংল্যান্ড। আর একাদশে জায়গা পাওয়া একমাত্র এই স্পিনার হলেন আদিল রশিদ। অবশ্য আস্থার প্রতিদান দিতে ভুল করেননি তিনি। পেসারদের ভিড়ে বিশেষভাবে নজর কেড়েছেন ডানহাতি এই স্পিনার। এদিন বল হাতে ৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

ইংল্যান্ডে বিশ^কাপ। তাই দাপট দেখাবেন পেসাররা। এ কারণে আদিল রশিদের বিশ^কাপ স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া নিয়ে জন্মেছিল অনিশ্চিয়তা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ঠিকই জায়গা পান তিনি। এমনকি একাদশে জায়গা পেয়েছেন সবকটি ম্যাচেই। উইকেট বেশি না পেলেও অসাধারণ বোলিংয়ে প্রতিপক্ষের রানের গতি নিয়ন্ত্রণে রেখে বেশ ভালোভাবেই সামলেছেন নিজের দায়িত্ব। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিনি নেন ১ উইকেট। বাংলাদেশের বিপক্ষেও ১টি উইকেট নেন আদিল রশিদ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ উইকেট নিয়ে দলের জয়ে রাখেন গুরুত্বপূর্ণ অবদান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিনি নেন ২ উইকেট। এ ছাড়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচেও ১টি উইকেট নেন তিনি। গতকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বল হাতে আদিল রশিদ ছিলেন দুর্দান্ত। ১০ ওভার বল করে ৫৪ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নেন এই স্পিনার। এটাই দ্বাদশ বিশ^কাপে তার সেরা বোলিং ফিগার। সব মিলিয়ে ঘরের মাঠে চলমান দ্বাদশ বিশ^কাপে ১০ ম্যাচে ৮৪ ওভার বল করে ১১ উইকেট পেয়েছেন তিনি। তার ইকোনমি ৫.৭৯।

আদিল রশিদের ওয়ানডে অভিষেক হয় ২০০৯ সালের ২৭ আগস্ট আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। এখন পর্যন্ত ৯৭টি ওয়ানডে খেলে ১৪৩ উইকেট পেয়েছেন তিনি। এটিই তার ক্যারিয়ারের প্রথম বিশ^কাপ।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj