পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবে আরো একজন গ্রেপ্তার

শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এক কিশোরকে আটক করেছে র‌্যাব। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজবাড়ীর পাংশা থেকে তাকে আটক করা হয়। তার নাম- মো. পার্থ আল হাসান (১৬)। সে সময় তার কাছ থেকে গুজব ছড়ানোর তথ্য সম্বলিত একটি স্মার্ট ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব-৮ এর কর্মকর্তা মেজর শেখ নাজমুল আরেফিন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পার্থ স্থানীয় কলেজের শিক্ষার্থী। গুজব ছড়ানোর বিষয়টি স্বীকার করেছে সে। এর আগে বুধবার বিকেল ৩টার দিকে চরফ্যাশন উপজেলার চর মাদ্রাজ এলাকা থেকে একই অভিযোগে আবদুল সহিদ হাওলাদারকে (২৪) আটক করে পুলিশ। চরফ্যাশন থানা পুলিশের ওসি সামছুল আরেফিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা অভিযান চালিয়ে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্ট ফোনসহ তাকে আটক করি। এছাড়াও গত মঙ্গলবার ডিএমপির মোহাম্মদপুর থানাধীন চাঁদ উদ্যান এলাকায় জনগণের পিটুনিতে এক যুবক নিহত হন। এ বিষয়ে থানা পুলিশ জানায়, পদ্মা সেতু নিয়ে ছড়িয়ে পড়া গুজবের কারণে চাঁদ উদ্যান এলাকায় বসবাসকারী নি¤œ আয়ের মানুষের অনেকেই নিজেদের সন্তানকে নিয়ে আতঙ্কিত। এর মধ্যেই অপরিচিত এক যুবক ওই এলাকার এক শিশুকে ডেকে কথা বলেন। দূর থেকে এ দৃশ্য দেখে সন্দেহ হয় অভিভাবকদের। তারা ধরেই নেন যুবকটি শিশুটিকে অপহরণের উদ্দেশ্যে এসেছে। মুহূর্তে তাকে ছেলেধরা আখ্যা দিয়ে মারধর শুরু হয়। কিল-ঘুষির পাশাপাশি ইট দিয়ে থেঁতলে দেয়া হয় তার মাথা। আনুমানিক ২৫ বছর বয়সী ওই যুবকের পরনে ছিল ট্রাউজার ও টি-শার্ট।

এদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সূত্রগুলো বলছে, গত কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন ব্যক্তির ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, পেজ ও গ্রুপ থেকে এ ধরনের গুজব ছড়ানো হয়। ধীরে ধীরে তা ছড়াতে থাকে। সোমবার থেকে সক্রিয় হয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থা। এরইমধ্যে ওই পোস্ট শেয়ার করেছেন এমন অন্তত ১০ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজন তরুণীও রয়েছেন। এ ছাড়া প্রাথমিকভাবে ১২টি ফেসবুক গ্রুপ শনাক্ত করা হয়েছে। গুজব ছড়ানো এসব গ্রুপে হাজার হাজার ফলোয়ার রয়েছে। অনেকে নিজেদের অ্যাকাউন্ট থেকেও ফটোশপ ও সুপার ইম্পোজ করে কাটা মাথার ছবি ছড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত শনাক্ত হওয়া লোকজনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট যাচাই করে দেখা গেছে, এরা বিভিন্ন সময়েই নানা গুজব ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ায়। আবার অনেকে না বুঝেই গুজব সংবলিত পোস্ট শেয়ার দিয়েছেন। প্রসঙ্গত, পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন গুজব ছড়ানোর পর দেশের বিভিন্ন এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সেতু কর্তৃপক্ষ এই গুজব নিয়ে বিবৃতি দিলেও জনমনে এ নিয়ে এখনো বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। এসবের পরিপ্রেক্ষিতেই গুজব ছড়ানোকারীকে ধরতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও তৎপর হয়েছে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj