জেনে নিন : রেফারেন্স লেটার

রবিবার, ৭ জুলাই ২০১৯

রেফারেন্স লেটার মূলত তৃতীয় পক্ষের দেয়া ব্যক্তিগত চারিত্রিক সনদ, যা আবেদনকারীর চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি করে। তাই চাকরির বাজারে সুনির্দিষ্ট কোনো ক্ষেত্রে প্রবেশ করতে আবেদনকারীদের বিশেষ রেফারেন্সের প্রয়োজন হয়। আপনি যদি কোনো ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তি হয়ে থাকেন, তবে আপনাকেও পরিচিত কারো জন্য রেফারেন্স লেটার দেয়ার প্রয়োজন হতে পারে। চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং অভিজ্ঞতার মতোই রেফারেন্স সমান গুরুত্বপূর্ণ।

কাকে রেফারেন্স লেটার দেবেন : যদি কখনো রেফারেন্স লেটার দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়, তবে নিশ্চিত করুন যে আবেদনকারীকে ভালোভাবে চেনেন। নিজের পরিচিত কমিউনিটি বা নেটওয়ার্কের মধ্যে থাকা ব্যক্তিকেই শুধু রেফারেন্স লেটার দিন। অন্যথায় ভবিষ্যতে মানহানি বা নানা রকম জটিলতায় পড়তে পারেন। কেননা রেফারেন্সের উপর ভিত্তি করেই আবেদনকারীকে কোনো প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দিবে। সুতরাং তার কৃত কর্ম বা অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য আপনিও সমানভাবে দায়ী থাকবেন। হয়তো কোনো ফৌজদারি মামলায় আপনাকে জড়ানো হবে না, কিন্তু মানহানি তো হবে। চলুন এবার ভালোভাবে জেনে নিই, রেফারেন্স লেটারে কী কী থাকা উচিত বা রেফারেন্স লেটার কেমন হওয়া উচিত।

প্রার্থীর সঙ্গে আপনার সম্পর্ক : কাউকে রেফারেন্স দেয়ার ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্টভাবে তার সঙ্গে আপনার সম্পর্ক নির্ণয় করুন। আবেদনকারী আপনার আত্মীয়র আত্মীয়, বন্ধুর বন্ধু অথবা দুঃসম্পর্কের কেউ এমন হওয়া উচিত নয়। যে ব্যক্তির জন্য আপনি রেফারেন্স লেটার লিখবেন তার সঙ্গে আপনার সুনির্দিষ্ট সম্পর্ক উল্লেখ করুন। যেমন এভাবে উল্লেখ করুন, জনসন আর আমি একটা মানবাধিকার সংস্থায় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেছি এবং তাকে ব্যক্তিগতভাবে আমি চিনি, অথবা জনসন আমার নিকটতম প্রতিবেশী এবং আমার ছেলের বন্ধু। আমি তার মঙ্গল কামনা করি। এভাবে সুনির্দিষ্ট সম্পর্কের কথা উল্লেখ করলে নিয়োগকারীরা আবেদনকারীর প্রতি বিশেষ মনোযোগী হয়।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj