দেশে সম্ভাবনাময় খাত সেমিকন্ডাক্টর শিল্প

রবিবার, ৩০ জুন ২০১৯

বৈশ্বিক প্রযুক্তির বাজারে সেমিকন্ডাক্টর শিল্প বেড়েই চলেছে। বিশ্ব সেমিকন্ডাক্টর অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে আয় পৌঁছেছে ৪৮০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে। বাংলাদেশেও বিভিন্ন ডিভাইসের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। আর এসব ডিভাইসগুলোর জন্য চিপের চাহিদাও ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। সুতরাং দেশীয় যে কোন প্রযুক্তির ক্ষেত্রে যন্ত্রাংশ তৈরির লক্ষ্যে চিপ প্রস্তুতকরণ একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ। বাহিরের চিপ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের শরণাপন্ন না হয়ে দেশেই চিপ প্রস্তুত করতে পারলে বৈশ্বিক সেমিকন্ডাক্টর আয়ে বাংলাদেশও অবদান রাখতে পারে। সিলিকনভিত্তিক সেমিকন্ডাক্টর প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইন্টেল দুই দশকের বেশি সময় ধরে একক শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছে। এ ছাড়াও, কোরিয়া ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান স্যামসাং এবং চীনের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এখন চিপ তৈরিতে এগিয়ে রয়েছে। বাংলাদেশেও রয়েছে এই সেমিকন্ডাক্টর শিল্পে বিপুল সম্ভাবনার সুযোগ। এই সম্ভাবনা নিয়ে ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক এবং বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের যৌথ উদ্যোগে একটি ক্যারিয়ার টকের আয়োজন করা হয়। এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন ইন্টেলের সাবেক কর্মী আলিয়া সাফাকাত। আলিয়া সাফাকাত এখন চিপ ডিজাইন তৈরি এবং বাংলাদেশকে একটি সিলিকন ডেল্টায় পরিণত করতে কাজ করছেন। তিনি বর্তমানে তাহই এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে কর্মরত আছেন।

আলিয়া সাফাকাত বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লব হবে তথ্যভিত্তিক বিপ্লব যেখানে বিশ্বদরবারে টিকে থাকার জন্য নেটওয়ার্কিংয়ের মাধ্যমে সংযুক্তি হবে একটি বড় মাধ্যম।

:: ডটনেট ডেস্ক

ডট নেট'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj