গানে গানে মুগ্ধতা

শনিবার, ২৯ জুন ২০১৯

রাজধানীর উত্তরা ক্লাবের উদ্যোগে একই মঞ্চে গাইলেন চার কণ্ঠশিল্পী আগুন, মৌটুসী, সাব্বির ও নন্দিতা। গত বৃহস্পতিবার রাতে ক্লাবটির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয় ‘হারানো সেই সুর’ নামের একটি ঈদ পুনর্মিলনী এবং সঙ্গীতানুষ্ঠান পর্ব। সঙ্গীতানুষ্ঠান পর্বে একইমঞ্চে একসঙ্গে বসে সঙ্গীত পরিবেশন করেন তারা। আগুন তার নিজের মৌলিক গানসহ সুবীর নন্দী ও অ্যান্ড্রু কিশোরের কিছু গান পরিবেশন করেন। তার সঙ্গে দ্বৈত গান পরিবেশন করেন সানজিদা মাহমুদ নন্দিতা। বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় কিছু গান আগুন ও নন্দিতা পরিবেশন করেন। অন্যদিকে মৌটুসী ও সাব্বির ষাট ও সত্তর দশকের লতা মুঙ্গেশকর, কিশোর কুমার ও হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের জনপ্রিয় কিছু গান পরিবেশন করেন এককভাবে ও দ্বৈতভাবে। এ ছাড়াও মৌটুসী পরিবেশন করেন পরদেশী মেঘ, যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়, সাব্বির পরিবেশন করেন চেনা চেনা লাগে, আমায় প্রশ্ন করে সহ আরো বেশ কিছু গান। মূলকথা আগুন, মৌটুসী, সাব্বির ও নন্দিতার গায়কীর মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের নাম ‘হারানো সেই সুর’র সার্থকতা খুঁজে পায় আগত অতিথিরা। শিল্পীদের সুরেলা কণ্ঠে শ্রæতিমধুর গান শ্রোতা-দর্শকের মধ্যে পুরোটা সময়ই মুগ্ধতা ছড়িয়ে রাখে। রাত ১২টার পর পর্যন্তও শ্রোতা দর্শক তাদের গানে গানে মুগ্ধ হন। উপস্থিত সবার ভাষ্য ছিল এমন, অনেকদিন পর তারা এমন চমৎকার গানের আয়োজনের মুখোমুখি হলেন। কণ্ঠশিল্পী আগুন বলেন, ‘সত্যি বলতে কী উপস্থিত শ্রোতা-দর্শকের ভালোলাগার ওপরই নির্ভর করে শিল্পীদের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা। যেহেতু অনুষ্ঠানের নামই হারানো সেই সুর, তাই আমরা গানে গানে হারানো সেই সুরের গানকেই সবার মধ্যে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। দীর্ঘদিন পর কোনো অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্যে দারুণ ভালোলাগা খুঁজে পেয়েছি। ধন্যবাদ আয়োজকদের।’ মৌটুসী বলেন, ‘এক কথায় দারুণ একটি অনুষ্ঠান হয়েছে। অনকেদিন পর একটি প্রাণবন্ত অনুষ্ঠান করলাম। ভালো গানের শ্রোতা যে এখনো আছে এই অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে যেন তাই প্রমাণিত হলো।’

:: মেলা প্রতিবেদক

মেলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj