পুলিশ বক্সগুলোর দিকে নজর দেয়া প্রয়োজন

বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯

সাঈদ চৌধুরী

সারাদিন বিনা বিশ্রামে ধূলি, কাদা, বৃষ্টি, রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে থেকে কর্তব্য পালনরত কোনো পুলিশ সদস্যের মুখের দিকে তাকিয়ে দেখেছেন কখনো? প্রায় প্রতিদিনই গাজীপুরের তীব্র ধূলিযুক্ত চৌরাস্তার মোড় থেকে শুরু করে উত্তরা পর্যন্ত প্রত্যেকটি সদস্যের মুখের দিকে তাকিয়ে উপলব্ধি করেছি মাস্ক মোড়ানো পুলিশ সদস্যদের অসাধারণ কষ্টকে! এ কষ্ট আসলে অবর্ণনীয়। কোনো কোনো পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে অবৈধ টাকা নেয়ার অভিযোগ থাকতে পারে, কিন্তু বেশিরভাগ সদস্যই দেশের মানুষের নিরাপত্তার জন্য, সড়কের শৃঙ্খলার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তারা সারাদিন ঘামে ভিজে যে কষ্ট করছেন তা মাপা যায় না এবং কষ্টের পর একটু বিশ্রামের জায়গাটিও তেমন সুন্দর অবকাঠামোর মধ্যে থাকে না অনেক ক্ষেত্রেই। এমনও দেখা যায় সবচেয়ে ময়লা জায়গার পাশেই ছোট্ট খুপরি ঘরের মতো করে রাখা হয়েছে একেকটি পুলিশ বক্স! পুলিশ বক্স যেগুলো রয়েছে তার বেশিরভাগেই দেখা যায় একটি বা দুটি চেয়ার আর একটি টেবিলের সমন্বয়ে সামান্য একটু জায়গা! অনেক সময় নারী পুলিশ সদস্যও রাস্তার ওপর রোদের মধ্যে একটি বেঞ্চে বসেই কাটিয়ে দেন সারা দিন! রাতে আরো কষ্ট কখনো কখনো! পুলিশ বক্সগুলোর আধুনিকায়নে সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করছি। খাবার পানি, টয়লেট, একটু বিশ্রামের জায়গা, সিসিটিভি ক্যামেরা রেখে প্রয়োজনে খুব গরমযুক্ত জায়গায় এসির সুবিধা রেখে পুলিশ বক্সগুলো আধুনিকায়নের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সব দপ্তরের কাছে আবেদন রাখছি। পুলিশ বাহিনী সঠিকভাবে তার কার্য পরিচালনা করতে পারলেই কেবল সুশৃঙ্খল একটি ব্যবস্থা চালু হতে পারে। আশা করি সংশ্লিষ্ট দপ্তর এ ব্যাপারে জরুরি পদক্ষেপ নেবে।

:: শ্রীপুর, গাজীপুর

মুক্তচিন্তা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj