দুই স্পিনারেই ভরসা

শনিবার, ১৫ জুন ২০১৯

খেলা প্রতিবেদক : কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনসে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দিবা রাত্রির ম্যাচে আজ দক্ষিণ আফ্রিকা ও আফগানিস্তান মাঠে নামছে। এখন পর্যন্ত প্রোটিয়া ও ব্লু টাইগার্সরা তাদের খেলা সবগুলো ম্যাচেই হেরেছে। ম্যাচগুলোতে হারলেও তাদের চেষ্টার কমতি ছিল না। ভাগ্য সহায়ক না হওয়ায় হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়। তবে দলের হারের দিনেও আফগানিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনাররা উজ্জ্বল ছিলেন সব ম্যাচে। আগের ম্যাচ গুলোর মতো এই ম্যাচটিতেও উভয় দল চাইবে স্পিনের ঘূর্ণি দিয়ে প্রতিপক্ষের শিবিরে ধস নামিয়ে ম্যাচ জিতে নিতে। আজকের ম্যাচে আফগানিস্তানের হয়ে দ্যুতি ছড়াতে পারেন ওডিআই বোলিং র‌্যাঙ্কিংয়ের তিন নম্বরে থাকা স্পিনার রশিদ খান। প্রোটিয়াদের হয়ে জ্বলে ওঠতে পারেন র‌্যাঙ্কিংয়ের চারে থাকা স্পিনার ইমরান তাহির।

দুই দলের সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপও তাদের ওপর একটু বেশি। বেশি হওয়ার কারণটাও তাদের পারফরমেন্স। বিশ^কাপের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস প্রথম ওভারেই তাহিরকে বল করতে আনেন। তিনিও অধিনায়কের আস্থার প্রতিদান দিয়ে জনি বেয়ারস্টোকে প্রথম ওভারে আউট করেন। ম্যাচটিতে দুইটি উইকেট শিকার করেন। আবার পরের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই উইকেট শিকার করলেও ভারতের বিপক্ষে উইকেট ছাড়া ছিলেন। ২০১৫ বিশ^কাপে করেছিলেন দারুণ পারফরমেন্স। আট ম্যাচ থেকে ১৫টি উইকেট নিয়ে ছিলেন সেরা ১০ উইকেট শিকারীদের মধ্যে। ২০১১ সালে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া তাহির বিশ^কাপে এখন পর্যন্ত ১৭টি ম্যাচ খেলে পেয়েছেন ৩৩টি উইকেট। আর পুরো ক্যারিয়ার জুড়ে খেলেছেন ১০২টি ম্যাচ। সবমিলিয়ে ঝুলিতে রয়েছে ১৬৬টি উইকেট। এর মধ্যে রয়েছে তিনবার পাঁচ উইকেট নেয়ার কীর্তি।

অন্যদিকে রশিদ খান আফগানদের অন্যতম ভরসার স্থল। সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলে ওয়ানডেতে ১০০ উইকেট নেয়ার কীর্তি রয়েছে তার। দ্বাদশ বিশ^কাপেও তিনি দারুণ পারফরমেন্স করে যাচ্ছেন। প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নেন এক উইকেট। দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দেখান তার আসল ভয়ঙ্কর রূপ। ম্যাচটিতে ৭ ওভার ৫ বল করে দিয়েছিলেন মাত্র ১৭ রান। এই অল্প রানের বিনিময়ে নিয়েছিলেন গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট। তবে ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বোলিং করতে পারেননি। ২০১৫ সাল থেকে আফগানিস্তানের হয়ে খেললেও এবারই প্রথম বিশ^কাপ খেলছেন তিনি। এখন পর্যন্ত ৬২টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ১২৮টি উইকেট।

দুই স্পিনারের কাগজে কলমের পরিসংখ্যান ও মাঠের খেলা পর্যালোচনা করে বলাই যায় দুই স্পিনারের দারুণ এক উপভোগ্য লড়াই হতে যাচ্ছে আজ।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj