সংসদে কাদের : সড়কে মৃত্যু দশ বছরে ২৫০০০

বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গত ১০ বছরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ২৫ হাজার ৫২৬ জন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন ১৯ হাজার ৭৬৩ জন। গতকাল বুধবার বিএনপি দলীয় এমপি মো. হারুনুর রশীদের লিখিত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।

এমপি আবদুস শহীদের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, অনেক চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই এ কথাটি অস্বীকার করার উপায় নেই। এ ক্ষেত্রে কিছুটা সমন্বয়হীনতা রয়েছে এবং লাইসেন্সবিহীন চালকদের আটকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরও গাফিলতি আছে। সমন্বয়হীনতা কমিয়ে সচেতনতা বাড়াতে সচেষ্ট রয়েছে মন্ত্রণালয়।

এমপি হাজী মো. সেলিমের (ঢাকা-৭) লিখিত প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন রুটে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে বিআরটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছেন। ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের ৩১ মে পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩৩ হাজার ৩০৫টি মামলায় ৬৩ কোটি ২৬ লাখ দুই হাজার ৮২০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এছাড়া ১৯৫টি গাড়ি ডাম্পিং স্টেশনে এবং ৫৫৮ জন আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এম আবদুল লতিফ (চট্টগ্রাম-১১) এর প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিআরটিসির জন্য ৩০০টি দ্বিতল, ১০০টি একতলা নন এসি বাস, ১০০টি একতলা এসি (সিটি) বাস এবং ১০০টি একতলা (ইন্টারসিটি) গাড়ি আমদানির লক্ষ্যে ভারতীয় দুইটি গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ ছাড়া যানজট নিরসনের লক্ষ্যে ব্যক্তিগত ছোট গাড়ি ব্যবহারকে নিরুৎসাহিত করার জন্য আরও ২১০০টি নন এসি স্কুল বাস, ২০০টি একতলা এসি বাস এবং ২০০টি একতলা এসি সিটি বাস সংগ্রহের পরিকল্পনা রয়েছে।

বিএনপির মো. হারুনুর রশীদের লিখিত প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সারাদেশে প্রতিনিয়ত সড়ক দুর্ঘটনায় মানুষ মারা যাওয়ার উল্লেখযোগ্য কারণ হচ্ছে ওভারলোডিং, ওভারটেকিং, যান্ত্রিক ত্রুটি, যাত্রীদের অসচেতনতা, চালকদের ট্রাফিক সাইন ও ট্রাফিক আইন না মানার প্রবণতা, একনাগাড়ে ৫ ঘণ্টার বেশি গাড়ি চালনা ইত্যাদি। এ জাতীয় ৮টি কারণ চিহ্নিত করে সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। এর মধ্যে একটি হলো পথচারীকে জেব্রাক্রসিং, ফুটওভারব্রিজ ও আন্ডারপাস ব্যবহারে উদ্ধুদ্ধ করা হচ্ছে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj