ভাঙ্গুড়ায় অধ্যক্ষের হাতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবক লাঞ্ছিত

বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার পাটুলীপাড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ বদরুল আলম তার প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষার্থী ও তার অভিভাবককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছেন। গতকাল বুধবার দুপুরে ওই কলেজের পাশের সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে শিক্ষার্থী শাকিল হোসেন ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। প্রসঙ্গত, ওই অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবহারিক পরীক্ষার ফি লুটপাটসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। তা ছাড়া জামায়াতপন্থি একটি পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয়ে প্রশাসনের ওপর খবরদারিসহ বিভিন্ন অনৈতিক সুবিধাও নেন শিক্ষক নামধারী এই দুর্বৃত্ত।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শাকিল গত ২০১৭ সালে পাটুলীপাড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ থেকে এসএসসি পরীক্ষা পাস করে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে সিরাজগঞ্জের সরকারি মেরিন একাডেমিতে ভর্তি হন। এরপর শাকিলকে পাটুলীপাড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে এইচএসসিতেও ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেন অধ্যক্ষ বদরুল আলম। সেই মোতাবেক শাকিল ২০১৭ সালেই ওই কলেজের অধ্যক্ষের সহায়তায় বোর্ড থেকে এসএসসির আরেকটি মার্কশিট সংগ্রহ করে এইচএসসিতে ভর্তি হন। চলতি বছরের প্রথম দিকে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ করতে কলেজের অধ্যক্ষ বদরুল আলমকে তিন হাজার তিনশ টাকা দেন শাকিল। কিন্তু অফিসিয়াল ত্রুটির কারণে শাকিলের ফরম পূরণ সম্পন্ন হয়নি। পরে শাকিল প্রদানকৃত টাকা ও মার্কশিট ফেরত চাইলে বদরুল আলম গতকাল বুধবার তাকে কলেজে যেতে বলেন। সেই মোতাবেক শাকিল তার পিতা মতিউর রহমান ও চাচা আবুল কাশেমকে নিয়ে কলেজে যান। কিন্তু বদরুল আলম কলেজে না থাকায় কেরানির মাধ্যমে তাদের টাকা ফেরত দিলেও মার্কশিট দিতে অসম্মতি জানান। এ নিয়ে ফোনে বদরুল আলমের সঙ্গে শাকিলের বাবা ও চাচার বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে শাকিল ও তার বাবা-চাচা ভাঙ্গুড়া বাজারে ফেরার পথে কলেজের পাশের একটি সড়কে বদরুল আলমের সঙ্গে দেখা হয়। এ সময় বদরুল আলম শাকিলকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও আবুল কাশেমকে মারধর করে শার্ট ছিঁড়ে দেন। পরে আবুল কাশেমকে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করে অধ্যক্ষ বদরুল আলম বলেন, কাউকেই তিনি মারধর বা লাঞ্ছিত করেননি। বরং শাকিল ও তার বাবা-চাচা তার সঙ্গে নোংরা আচরণ করেছেন।

ভাঙ্গুড়া থানার ডিউটি অফিসার এএসআই রাজু আহমেদ অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj