বাজেট অধিবেশন শুরু : বাস্তবমুখী আলোচনার আহ্বান স্পিকারের

বুধবার, ১২ জুন ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : জাতীয় সংসদে বাস্তবমুখী আলোচনা-সমালোচনার আহ্বান জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি বলেছেন, বাজেট অধিবেশন খুব গুরুত্বপূর্ণ। আশা করি, সরকারি ও বিরোধী দলের সাংসদরা সরকারি আয়-ব্যয়ের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার পাশাপাশি সুচিন্তিত মতামত দিয়ে বাজেটকে আরো বাস্তবমুখী করার ওপর আলোচনা করবেন। গতকাল মঙ্গলবার চলতি সংসদের তৃতীয় ও নতুন সরকারের প্রথম বাজেট অধিবেশনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

গতকাল বিকেল ৫টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন টানা তৃতীয় মেয়াদের সরকারের প্রথম বাজেট অধিবেশন শুরু হয়। এর আগে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সংসদের কার্যোপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশন ১১ জুলাই পর্যন্ত অধিবেশন চালানোর সিদ্ধান্ত হয়। প্রতিদিন অধিবেশন শুরু হবে বিকেল ৩টায়। স্পিকার প্রয়োজনে অধিবেশনের মেয়াদ ও সময়সীমা বাড়াতে ও কমাতে পারবেন।

গতকাল বিকেল ৪টায় স্পিকারের সভাপতিত্বে কার্যোপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে কমিটির সদস্য সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ওবায়দুল কাদের, রাশেদ খান মেনন, হাসানুল হক ইনু, ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, আনিসুল হক, আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এবং চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী অংশ নেন।

অর্থমন্ত্রীর বাজেট প্রস্তাবনার পর পুরো অধিবেশনজুড়ে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনা করবেন সাংসদরা। সংবিধান অনুযায়ী, ৩০ জুনের মধ্যেই নতুন অর্থবছরের বাজেট পাস করতে হবে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পাস হওয়া পর্যন্ত প্রতি বৃহস্পতিবার সরকারি দিবস হিসেবে গণ্য হবে। ১৭ জুন সম্পূরক বাজেট পাস হবে। ১৮ জুন হতে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। ২২ ও ২৯ জুন এই দুই শনিবার অধিবেশন কার্যক্রম চলবে। তবে ৩০ জুন বাজেট পাসের পরে ১ থেকে ৬ জুলাই অধিবেশন মুলতবি থাকবে।

বৈঠক সূত্র জানায়, এ অধিবেশনে উত্থাপনের জন্য পর্যন্ত কোনো সরকারি বিলের নোটিস পাওয়া যায়নি। পূর্বে অনিষ্পন্ন ৩টি সরকারি বিল পাসের জন্য কমিটিতে পরীক্ষাধীন রয়েছে। বেসরকারি সদস্যদের কাছ থেকে কোনো বিলের নোটিস পাওয়া যায়নি। পূর্বে প্রাপ্ত ও অনিষ্পন্ন ১টি বেসরকারি বিল রয়েছে। এই অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য ৮৩টিসহ মোট ১৯৩৪টি প্রশ্ন পাওয়া গেছে। এ ছাড়া সিদ্ধান্ত প্রস্তাব ১৭০টি ও মনোযোগ আকর্ষণের ৪৭টি এবং সংক্ষিপ্ত আলোচনার জন্য ১টি নোটিস পাওয়া গেছে।

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মনোনয়ন : এর আগে স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে সংসদের বৈঠক পরিচালনার জন্য অধিবেশনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মনোনয়ন দেয়া হয়। মনোনীতরা হলেন- মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, এ বি তাজুল ইসলাম, হাবিবে মিল্লাত, কাজী ফিরোজ রশিদ ও মেহের আফরোজ চুমকি। বাজেট উত্থাপন : আগামীকাল বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য দেশের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাবনা উত্থাপন করবেন। এবারো ডিজিটাল ডিসপ্লের মাধ্যমে বাজেট উপস্থাপন ও বক্তৃতা করবেন অর্থমন্ত্রী। এবার তার সঙ্গে যুক্ত হবে একটি ভিডিওচিত্র। ওই ভিডিওচিত্রে বর্তমান সরকারের সামগ্রিক সাফল্য তুলে ধরা হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বাজেট সংসদে উপস্থাপনের আগে তা মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনুমোদন নেয়া হবে। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর তা রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে। এই দিন সংসদ ভবনে উপস্থিত থাকবেন রাষ্ট্রপতি। তিনি অর্থমন্ত্রীর বাজেট বক্তৃতা শুনবেন।

দ্বিতীয় সংস্করন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj