‘নির্বাচনের স্বচ্ছতা ইসির ওপর নির্ভর করে না’

বুধবার, ১২ জুন ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : নবনিযুক্ত নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, একটা নির্বাচন স্থানীয় হোক বা সংসদীয় আসনে হোক শুধু নির্বাচন কমিশনের ওপর নির্ভর করে না। নির্বাচনে প্রার্থী, স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হয়। নিরপেক্ষ নির্বাচন হতে হবে। কাউকে চাপ বা ভয়ভীতি দেখানো যাবে না। সবাই যাতে নির্বাচনে অংশ নিতে পারে, আচরণবিধি যাতে সবাই মেনে চলে সে ব্যাপারে আমরা খুবই সজাগ। আইনশৃঙ্খলা যাতে সঠিকভাবে থাকে, সবাই যাতে নির্ভয়ে ভোট দিতে পারে সে জন্য জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপারদের নির্দেশ দেয়া আছে। গতকাল মঙ্গলবার আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা যৌক্তিক বিষয়টা করার চেষ্টা করব। আপ্যায়ন ৩ কোটি, ৫ কোটি ফ্যাক্টর না। ফ্যাক্টর হচ্ছে তা যৌক্তিক কি না। বিষয়টা কি, তার ওপর নির্ভর করবে। এখন এক লাখ মানুষের নাস্তা ১০ টাকা করে হলেও অনেক টাকা। দেখতে হবে ১০ জনে এক লাখ টাকার নাস্তা করেছে কিনা।

তিনি বলেন, ভোটারের উপস্থিতি নির্ভর করে প্রার্থীদের ওপর। ইসির যতটুকু আয়োজন করা দরকার সেটা আমরা শতভাগ করেছি। ইসি কোনো দলকে উৎসাহ দেয় না বা নিরুৎসাহিত করেন না। আমাদের দায়িত্ব হলো রেফারির মতো। মাঠে যারা খেলবেন তারা যেন খেলার মতো করে খেলতে পারেন। খেলতে গিয়ে কেউ ফাউল করলে তাকে হলুদ কার্ড বা লাল কার্ড দেখানো। কেউ যদি মাঠে খেলতে না আসে এটা রাজনৈতিক দলেরই দায়িত্ব। এ জন্য নির্বাচন কমিশনকে দায়ী করা যাবে না।

তিনি আরো বলেন, বগুড়া-৬ আসনের ১৪১টি কেন্দ্রের সবকটিতে ইভিএম- এ ভোট হবে। আমরা পূর্ব প্রস্তুতি নিয়েছি। রিটার্নিং অফিসার এবং পোলিং অফিসারদের ট্রেনিং করানো হবে এবং ভোটারদের একটা মকভোট নেয়া হবে। এ ছাড়া নির্বাচনের আগে ওখানে আইনশৃঙ্খলা সভাও হবে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj