বিধিবাম : মোটরসাইকেল চুরি করতে গিয়ে ধরা

বুধবার, ১২ জুন ২০১৯

নীলফামারী প্রতিনিধি : দিন-দুপুরে তালা ভেঙে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় তিনজনকে আটক করেছেন স্থানীয়রা। পরে উত্তম-মধ্যম দিয়ে তাদের থানায় দেয়া হয়।

সদর উপজেলার গোড়গ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেরাম্যান রেয়াজুল ইসলাম জানান, সোমবার দুপুরে ভবানীগঞ্জ হাটসংলগ্ন নীলসাগর মোড়ে ব্যবসায়ী রশিদুল ইসলাম মুন্সী তার গুদাম ঘরের সামনে মোটরসাইকেল রেখে তালা মেরে জোহরের নামাজ আদায় করতে যান।

এ সময় তিন মোটরসাইকেল চোর তালা ভেঙে নিয়ে যাওয়ার সময় ইউপি মেম্বার লিখন তাদের দেখে ফেলেন এবং স্থানীয়দের সহায়তায় ধাওয়া করে তিনজনকেই আটক করেন।

আটককৃতরা হলো- সদর উপজেলার চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নের আব্দুল সাত্তার (৪২), আবু বক্কর সিদ্দিক (২৫) এবং সৈয়দপুর উপজেলার কাজীপাড়া এলাকার ইমরান হোসেন (২৪)।

বেশ কিছু দিন ধরে নীলফামারীতে মোটরসাইকেল ও বাইসাইকেল চুরি বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ৩০ মে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবাষির্কীর অনুষ্ঠান চলাকালে বিএনপি অফিসের সামনে থেকে দুটি মোটরসাইকেল খোয়া যায়। এ ছাড়া এর কয়েক দিন আগে শহরের শাখামাছা বাজার এলাকা থেকে আরো একটি মোটরসাইকেল চুরি হয়।

এক মাসে অন্তত ১০টি বাইসাইকেল চুরি গেছে শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে।

একাধিক সূত্র জানায়, স্থানীয় সংঘবদ্ধ চোর দলের সঙ্গে সৈয়দপুর উপজেলা এবং দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলার একাধিক মোটরসাইকেল চোর দল যুক্ত হয়েই এ চুরি সংঘটিত করছে।

চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল নিরাপদ স্থানে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নম্বর প্লেট খুলে ফেলে তা সীমান্তবর্তী এলাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

পরবর্তী সময়ে সেখান থেকে নানা হাত ঘুরে তা আবার নতুনভাবে ক্রেতার হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে। কয়েক বছর আগে শহরের কলেজপাড়া এলাকার ব্যাংক কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম গোলাপের বাসা থেকে খোয়া যাওয়া দুটি মোটরসাইকেলের একটি ঠাকুরগাঁও জেলার সীমান্তবর্তী গ্রাম থেকে দালালের মাধ্যমে সস্তায় কিনে ফেরার পথে নীলফামারী শহরে মোটরসাইকেলসহ এক পুলিশ সদস্য পাবলিকের হাতে

আটক হলেও অপর মোটরসাইকেলটির কোনো হদিস মেলেনি।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj