গাজীপুর ও নাটোরে কৃষি শুমারি শুরু

বুধবার, ১২ জুন ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : কৃষি শুমারি সফল করি, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ি- এই স্লোগানকে সামনে রেখে গাজীপুর ও নাটোরে কৃষি শুমারি শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার উভয় স্থানে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সম্পর্কে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্ট-

গাজীপুর : কৃষি শুমারি সফল করি, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ি- এই স্লোগানকে সামনে রেখে গাজীপুরে কৃষি শুমারি উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে জেলা প্রশাসন ও জেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ের উদ্যোগে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালিটি বের করা হয়। জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীরের নেতৃত্বে র‌্যালিটি জেলা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভাওয়াল সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা প্রশাসক ছাড়াও জেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপপরিচালক সোনিয়া আরেফিন বক্তব্য রাখেন। কৃষি শুমারির আওতায় আগামী ২০ জুন পর্যন্ত কৃষি তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এ জন্য পল্লী এলাকায় গড়ে ২৪০, পৌরসভা এলাকায় ৩০০ এবং সিটি করপোরেশন এলাকায় ৩৫০টি খানা নিয়ে একটি গণনা এলাকা গঠন করা হয়েছে।

নাটোর : উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নের মাধ্যমে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নাটোরে কৃষি শুমারি শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার বাড়ি বাড়ি গিয়ে কৃষি শুমারির উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ। এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজের সভাপতিত্বে সভায় জানানো হয়, দেশের অর্থনীতি তথা সমগ্র দেশের আয়ের মূল চালিকাশক্তি হচ্ছে কৃষি। জিডিপিতে বর্তমানে বৃহত্তর কৃষির সমন্বিত অবদান শতকরা ১৩.৩১ ভাগ এবং মোট শ্রম-শক্তির শতকরা ৪০ ভাগের বেশি কৃষিতে নিয়োজিত। কৃষির ওপর নির্ভর করে দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি চলমান রয়েছে। এ কারণে জাতীয় উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নে কৃষি খাতের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আশরাফুল ইসলাম, পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি, জেলা পরিসংখ্যান অফিসের উপপরিচালক দিলীপ কুমার, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. বেলাল হোসেন।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj