বৃষ্টির বাগড়ায় টাইগারদের ঝুলিতে মাত্র ১ পয়েন্ট : শেষ চারের সমীকরণটা কঠিন হয়ে গেল

বুধবার, ১২ জুন ২০১৯

খেলা প্রতিবেদক : আগের দিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেখেই শঙ্কা ভর করেছিল টাইগার ভক্তদের মনে। শঙ্কাটা কী তা কারো আজানা নয়। দ্বাদশ বিশ^কাপের সেমিতে যেতে জিততে হবে অন্তত ৫টি ম্যাচ। আর যেসব দলকে হারানোর লক্ষ্য নিয়ে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল দ্বাদশ বিশ^কাপে অংশ নিতে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছে সেগুলোর মধ্যে শ্রীলঙ্কা একটি। লঙ্কান ক্রিকেটে এখন বড্ড দুঃসময় চলছে। দলটিও দুর্বল। তাই টাইগার ভক্তদের প্রত্যাশা ছিল, বিশ^কাপে প্রথমবারের মতো লঙ্কা বধের ইতিহাস লিখে পুরো ২ পয়েন্ট আদায় করে শেষ চারে যাওয়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল করবেন মুশফিক-তামিমরা। আগের দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, মঙ্গলবার সারাদিন বৃষ্টি হতে পারে ব্রিস্টলে। সত্যি হলো আবহাওয়ার পূর্বাভাস, আর বৃষ্টির কারণে ভেস্তে গেল বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচটি। দুদলকে সন্তুষ্ট থাকতে হলো পয়েন্ট ভাগাভাগি করে। এটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়া এবারের বিশ^কাপের তৃতীয় ম্যাচ, যা বিশ^কাপ ইতিহাসে রেকর্ড। অতীতে কোনো বিশ^কাপেই বৃষ্টির কারণে এত ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়নি। ১৯৯২ ও ২০০৩ সালের বিশ^কাপে সমান দুটি করে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল বৃষ্টি বাগড়ায়।

শেষ চারে যাওয়ার পথে এখন কঠিন সমীকরণের সম্মুখীন টাইগাররা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২১ রানের জয় দিয়ে বিশ^কাপ যাত্রা শুরু করা বাংলাদেশ তাদের পরের দুটি ম্যাচে হারে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। আর গতকালের ম্যাচটি তো মাঠেই গড়ায়নি। সব মিলিয়ে মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের পয়েন্ট এখন ৪ ম্যাচে ৩। পয়েন্ট টেবিলে স্টিভ রোডসের শিষ্যদের অবস্থান ৭ নম্বরে। নিজেদের শেষ ৫ ম্যাচের ৪টিতে জিতলে সহজেই সেমির টিকেট পাবে বাংলাদেশ। অবশ্য ৩টিতে জিতলেও সম্ভাবনা থাকবে। তবে সে ক্ষেত্রে সম্মুখীন হতে হবে নেট রান রেটের কঠিন হিসেবে। শেষ ৫ ম্যাচের ৪টিতে জয় পাওয়াটা অবশ্য টাইগারদের কাছে বেশ কঠিনই বটে। কেননা এখনো ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ খেলা বাকি রয়েছে। ভারত-অস্ট্রেলিয়া দ্বাদশ বিশ^কাপের হট ফেভারিট। তাদের হারানো মোটেই সহজ হবে না।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের আগের দিন টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেছিলেন, এই ম্যাচ থেকে পুরো ২ পয়েন্ট না পেলে অনেক কঠিন হয়ে যাবে বাংলাদেশের সেমিতে উঠার সমীকরণ। আসলেই এখন শেষ চারে উঠার পথটা বেশ বন্ধুর হয়ে উঠল টাইগারদের জন্য। চ্যালেঞ্জটা অনেক কঠিন। তবে এই চ্যালেঞ্জ জয় করার সামর্থ্য বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের অবশ্যই রয়েছে।

ব্রিস্টলে এ দিন সকাল থেকে ভারি বৃষ্টি হতে থাকে। এই বৃষ্টি শুরু হয়েছিল আগের রাতে। মাঝখানে অবশ্য কিছুক্ষণের জন্য থেমেছিল, জেগেছিল ম্যাচ মাঠে গড়ানোর আশা। কিন্তু সেই আশা টিকেনি বেশিক্ষণ। আবার বৃষ্টি নামে মুষলধারে। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টির কাছে হার মেনে স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন দুই আম্পায়ার।

বাংলাদেশের পরের ম্যাচ আগামী সোমবার। ম্যাচটিতে মাশরাফির দলের প্রতিপক্ষ উইন্ডিজ। এই ম্যাচটির ভেন্যু ট্যান্টনের কুপার এসোসিয়েটস কাউন্টি গ্রাউন্ড। ম্যাচটি খেলতে আজ ট্যান্টনের উদ্দেশে ব্রিস্টল ছাড়বে বাংলাদেশ দল।

এদিকে ম্যাচ খেলতে না পারায় হতাশা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি। ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা হওয়ার পরপরই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনের সময় তিনি বলেন, মাঠে আসার পর খেলতে না পারা হতাশার। যে কোনো দলের জন্যই এটা আক্ষেপের ব্যাপার। তবে প্রকৃতির ওপর তো আর কারো হাত নেই। এভাবেই টুর্নামেন্ট এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আজকের ম্যাচটি খেলতে না পারায় আমি হতাশ।

এ সময় পরবর্তী ম্যাচ ও সাকিবের ইনজুরি প্রসঙ্গে ক্যাপ্টেন ম্যাশ জানান, আমাদের পরের ম্যাচ সোমবার। আশা করি এর আগেই সাকিব সুস্থ হয়ে উঠবে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন পুরো ফিট হয়ে উঠতে আরো ৪-৫ দিন সময় লাগবে তার। ট্যান্টনে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে লড়াই করেই জিততে হবে আমাদের।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj