বিশ্বকাপ মাতাচ্ছেন সাকিব : স্টার অব দ্য উইক

মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০১৯

দ্বাদশ বিশ^কাপে ব্যাট-বল হাতে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বিশ^সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এটি তার চতুর্থ বিশ^কাপ। এখন পর্যন্ত টাইগার দলকে ব্যাটে-বলে নিয়মিত ভরসা দিয়ে যাচ্ছেন সাকিব। এবার বিশ^কাপের শুরু থেকেই দুর্দান্ত ব্যাটিং করে যাচ্ছেন এ অলরাউন্ডার। ইংল্যান্ডের কার্ডিফে ইংলিশদের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বিশ^কে জানিয়ে দিয়েছেন কেন তিনি সেরা। বিশ^কাপ ক্রিকেটে এটিই তার প্রথম সেঞ্চুরি। ইংলিশদের বিপক্ষে ৯৫তম বলে সেঞ্চুরি করেন সাকিব। বাংলাদেশ দলের হয়ে বিশ্বকাপে এটা দ্রুততম সেঞ্চুরি।

এ ছাড়াও এবারের বিশ্বকাপের শীর্ষ রান সংগ্রহের তালিকায় আছেন টাইগার টেস্টও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। কার্ডিফে টাইগারদের বিপক্ষে ১২১ বলে ১৫৩ রানের ইনিংস খেলে রান সংগ্রহের তালিকায় শীর্ষে উঠেন ইংল্যান্ডের জেসন রয়। একই ম্যাচে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে রয়কে টপকে গিয়েছেন সাকিব। ১১৯ বলে ১২১ রান করে স্টোকসের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরার আগেই রান সংগ্রহকারীদের তালিকায় শীর্ষে ওঠেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। এবারের বিশ^কাপে এখনো পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে ৮৬.৬৬ গড়ে ১ সেঞ্চুরি ও ২ ফিফটিতে ২৬০ রান করেছেন সাকিব। ইংল্যান্ডের জেসন রয় সাকিবের সমান ম্যাচ খেলে ১ সেঞ্চুরি ও ১ ফিফটিতে ২১৫ রান করে আছেন তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। জশ বাটলার তালিকায় তৃতীয়তে আছেন। তিন ম্যাচ খেলে ৬১.৬৬ গড়ে বাটলার করেছেন ১৮৫ রান। চতুর্থ স্থানে আছেন জো রুট। তিনিও খেলেছেন তিন ম্যাচ। যেখানে ১ শতক ও ১ অর্ধশতকে তার সংগ্রহ ১৭৯ রান। আর মুশফিকুর রহিম ১৪১ রান তুলে আছেন পঞ্চম স্থানে।

বাংলাদেশ নিজদের প্রথম ম্যাচে কেনিংটন ওভালে প্রোটিয়াদের ২১ রানে হারিয়ে বিশ^কাপে শুভ সূচনা করেছে। এই ম্যাচে রেকর্ড গড়েছে বিশ^ সেরা অল রাউন্ডার সাকিব। বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টানা চার বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই ফিফটি হাঁকিয়েছেন তিনি। এরপর বল হাতে প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান এডিন মার্করামকে আউট করার মাধ্যমে ওয়ানডেতে ২৫০ উইকেটের মালিক হন সাকিব। ক্যারিয়ারের মাত্র ১৯৯তম ওয়ানডেতেই এই রেকর্ডের চূড়ায় উঠেছেন তিনি। এখন পর্যন্ত ২০১ ম্যাচ থেকে ৫৯৭৭ রান এবং ২৫২ উইকেট সংগ্রহ করেছেন তিনি।

এর আগে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৫ হাজার রান ও ২৫০ উইকেট শিকারির তালিকায় নাম তুলতে পাকিস্তানের আবদুর রাজ্জাক (২৩৪ ম্যাচ), দক্ষিণ আফ্রিকার জ্যাক ক্যালিস (২৯৬ ম্যাচ), পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি (২৭৩ ম্যাচ) এবং শ্রীলঙ্কার সনাৎ জয়সুরিয়া (৩০৪ ম্যাচ) খেলেছেন।

:: কামরুজ্জামান ইমন

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj