নীলনদে মিললো ৪০ মরদেহ : সুদানে বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০০

শনিবার, ৮ জুন ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : আফ্রিকার দেশ সুদানের রাজধানী খার্তুমে সামরিক বাহিনীর সদর দপ্তরের সামনে ‘গণতন্ত্রকামী’ নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর হামলার পর পার্শ্ববর্তী নীলনদ থেকে ৪০ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এই ৪০ জন ‘গণতন্ত্রকামী’ বিক্ষোভকারী ছিলেন বলে জানাচ্ছে আন্দোলনকারীদের সমর্থক সেন্ট্রাল কমিটি অব সুদান ডক্টরস (সিসিএসডি)। গত সোমবার খার্তুমে বিক্ষোভকারীদের অবস্থান কর্মসূচিতে ওই হামলার পর বুধবার রাতে সিসিএসডি এ খবর জানায়। এর আগে হামলায় ৬০ জন নিহত হওয়ার খবর দিয়েছিল বিক্ষোভকারীরা। নীলনদ থেকে ৪০ জনের মরদেহ উদ্ধারের ফলে এ ঘটনায় নিহত বিক্ষোভকারীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১০০ জনে।

গত ১১ এপ্রিল সুদানের দীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশিরকে ‘অভ্যুত্থানে’র মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করে ক্ষমতা দখল করে সামরিক বাহিনী। তাদের গঠিত কথিত মিলিটারি ট্রানজিশনাল কাউন্সিল ‘গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায়’ প্রথমে তিন বছরের সময় দাবি করে। এতে তুমুল বিক্ষোভ শুরু হলেও টনক নড়ছিল না ট্রানজিশনাল কাউন্সিলের। ‘গণতন্ত্রকামীরা’ সামরিক বাহিনীর সদর দপ্তরের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকলে গত ৩ জুন আধা সামরিক বাহিনী লেলিয়ে দেয়া হয়। এতে ব্যাপক রক্তপাত ও প্রাণহানি হলে বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার ট্রানজিশনাল কাউন্সিলের প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান জানান, আগামী ৯ মাসের মধ্যেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সেনা সদর দপ্তরের সামনে বিক্ষোভকারীদের অবস্থান কর্মসূচিতে আক্রমণের বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, যারা এতে জড়িত, তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা হবে। প্রত্যক্ষদর্শীরা সংবাদমাধ্যমকে জানান, হামলার শুরুতে পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনী আরএসএফ বিক্ষোভকারীদের লাঠিপেটা করতে থাকে। এরপর শুরু হয় গুলি। এই উত্তাল অবস্থায় দেশজুড়ে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়া হয়। সংঘাতের পর ট্রানজিশনাল কাউন্সিল পরিস্থিতি উত্তরণের উপায় খুঁজলেও মঙ্গলবারও খার্তুমে নিজের বাড়িতে এক নারীকে নিরাপত্তা বাহিনী গুলি করে মারে। এই রক্তপাত ও প্রাণহানির তুমুল নিন্দা হচ্ছে বিশ্বজুড়ে। জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতিয়েরেসও নিন্দা করেছেন নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের হত্যার।

পরিস্থিতি আঁচ করতে পেরে গত বুধবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত এক ভাষণে ট্রানজিশনাল কাউন্সিলের প্রধান জেনারেল আল-বুরহান দেশের নাগরিকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তিনি দেশের ‘ভালো ভবিষ্যতের জন্য অতীতের সব ভুলে নতুন উদ্যমে’ এগিয়ে চলার আহ্বান জানান সুদানিজদের প্রতি।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj