চেলসি এফসি : ক্লাব পরিচিতি

মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০১৯

চেলসি এফসি ইংল্যান্ডের ফুলহ্যামের একটি পেশাদার ফুটবল দল। ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ ফুটবল লিগ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলে থাকে দলটি। ১৯০৫ সালে যাত্রা শুরু করা ক্লাবটি এখন পর্যন্ত আটবার এফ এ কাপ, পাঁচবার প্রিমিয়ার লিগ কাপ, চারবার এফ এ কমিউনিটি শিল্ড, দুইবার ইউরোপা লিগ, দুইবার উয়েফা কাপ উইনিয়ার্স কাপ, একবার উয়েফা সুপার কাপ এবং একবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছে। ২০১১-১২ মৌসুমে তারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাটি ঘরে তুলেছিল।

এত এত শিরোপা জেতা চেলসির এখন বিশ্বব্যাপী পরিচিতি থাকলেও ২০০৩-এর আগে তা ছিল না। ২০০৩ সালে রাশিয়ান বিলিয়নিয়ার রোমান আব্রামোভিচ ক্লাবের মালিকানা কিনে নেন। প্রচুর টাকা খরচ করে দলে নিয়ে আসেন বিশ্বসেরা কোচ খেলোয়াড়দের। এরপর থেকেই সাফল্য পেতে থাকে ক্লাবটি। এখন বিশ্বের অষ্টম ধনী ফুটবল ক্লাব তারা। চেলসির নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী ক্লাবগুলো হলো ফুলহ্যাম এফ সি, আর্সেনাল, টটেনহ্যাম, লিডস ইউনাইটেড। এই দলগুলোর মধ্যকার ম্যাচগুলোকে ওয়েস্ট লন্ডন ডার্বি হিসেবে অবহিত করা হয়।

চেলসি ফুটবল দল রয়েল ব্লু জার্সি ও একই রংয়ের হাফপ্যান্ট পরে খেলে। তবে অ্যাওয়ে ম্যাচে হলুদ জার্সি ও হাফপ্যান্ট অথবা পুরোপুরি সাদা জার্সি ও সাদা হাফপ্যান্ট পরে খেলে। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই চেলসি স্টামফোর্ড ব্রিজ নামক স্টেডিয়ামকে তাদের হোম গ্রাউন্ড হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। এখানে প্রায় একচল্লিশ হাজার দর্শক একসঙ্গে বসে খেলা উপভোগ করতে পারে। তবে ১৯৭০ সালে মাঠটি সংস্কার করতে গিয়ে চেলসি কর্তৃপক্ষ দেউলিয়া হয়ে পড়লে মাঠটি থেকে তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

অনেক কাঠখড় পুরিয়ে ১৯৯০ সালে পুনরায় তাদের নিয়ন্ত্রণে এনে ১৯৯৮ সালে মাঠটি সংস্কার করে। চেলসিতে খেলেছে দিদিয়ে দ্রগবা, ডেনিস ওয়াইস, জন টেরির মতো বিশে^র নামিদামি খেলোয়াড়। চেলসির ইতিহাসে সবচেয়ে সফল কোচ হোসে মরিনহো।

:: খেলা ডেস্ক

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj