চাকরি খোঁজার আগে খুঁজুন নিজের ক্যারিয়ার

রবিবার, ২৬ মে ২০১৯

পড়ালেখা শেষ করেই পছন্দমতো একটা চাকরিতে ঢুকে যাওয়া যেন তাদের বহুদিনের আরাধ্য। কিন্তু দারুণ প্রতিযোগিতার এই সময়ে চাইলেই পছন্দমতো চাকরি পাওয়া খুব একটা সহজ আর নেই। ছাত্রত্ব অবস্থা থেকেই অনেকে শুরু করে দিচ্ছেন পার্ট-টাইম চাকরি। অথবা অনেকে ঠিক করে রেখেছেন একেবারে পড়ালেখা শেষ করেই ঢুকবেন চাকরিতে। টিপস-১ : চাকরির বাজারে যে কোন চাকরির জন্যে অস্থির হয়ে উঠবেন না। স্নাতক পাশ করা শিক্ষার্থীদের মধ্যে দ্রুত চাকরি পাওয়ার একটা প্রবণতা দেখা দেয় এবং তারা মানসিক চাপের মধ্যে থাকে, কারণ তাদের বন্ধুবান্ধব চাকরি পেয়ে যাচ্ছে কিন্তু তারা পাচ্ছেন না। যে কারণে তারা নিজেদের পারদর্শী না করে যে কোনো চাকরির ক্ষেত্রেই আবেদন করতে থাকেন। তাদের উচিত নিজেদের পড়ালেখার বিষয়ের উপর জোর দিয়ে চাকরি খোঁজা।

টিপস-২ : স্নাতক পাশ করার আগে থেকেই নিজেকে কিছু এক্সট্রা কারিকুলাম কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত রাখা উচিত। যা কিনা পরবর্তীতে নেতৃত্বদানে এবং ইন্টারপারসোনাল দক্ষতা বাড়াতে সাহায্য করে। ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন ধরণের ক্লাব, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, বিভিন্ন ধরনের ইভেন্ট সংগঠন করা মতো কাজে জড়িত থাকা উচিত। এতে করে তারা যখন ইন্টারভিউয়ের সম্মুখীন হবেন, তারা তাদের কাজের অভিজ্ঞতা বলতে পারবেন, তারা শুধুমাত্র পড়ালেখা নিয়েই পড়ে থাকেননি বরং তারা কাজের সঙ্গে জড়িত ছিলেন এবং তারা সেই কাজগুলো জানেন।

টিপস-৩ : গতানুগতিক এবং অস্পষ্ট ক্যারিয়ার অবজেটিভ না লিখে, একদম গোছানো এবং পরিস্কার একটি ক্যারিয়ার অবজেকটিভ লিখতে হবে।

শিক্ষার্থীদের উচিত তার জীবনবৃত্তান্তে উল্লেখ করা তাদের পছন্দসই ক্ষেত্রে সে চাকরি করতে আগ্রহী।

টিপস-৪ : যোগাযোগ দক্ষতা বাড়াতে হবে এবং ইংলিশে তুখোড় হতে হবে। সব শিক্ষার্থীদের উচিত অন্য ভাষায় কথা বলাতে দক্ষ হওয়া।

টিপস-৫ : একটি ভালো সিজিপিএ। প্রথম চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে ভালো রেজাল্ট সবসময়ই অগ্রাধিকার পায়।

টিপস-৬ : কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সম্পর্কে সবসময় জানতে হবে। সাধারণ জ্ঞান, ইতিহাস, আন্তর্জাতিক রাজনীতি, বিভিন্ন দেশের এবং সংস্কৃতির মানুষ সম্পর্কে জানতে হবে।

টিপস-৭ : একটি দারুণ নেটয়ার্ক তৈরি করতে হবে। চাকরির ক্ষেত্রে প্রভাব এবং প্রতিপত্তি সম্পন্ন মানুষের সঙ্গে ভালো যোগাযোগ থাকলে, সেক্ষেত্রে একটি ভালো চাকরি পাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়।

টিপস-৮ : ক্যারিয়ারের রাস্তা সম্পর্কে একটা পরিস্কার লক্ষ্য রাখতে হবে। অনেক শিক্ষার্থী আছেন, স্নাতক পাশ করার পরে বুঝতে পারেন না যে এখন তিনি কী করবেন। এর মধ্যে বহু শিক্ষার্থী শুধুমাত্র ট্রেন্ডকে অনুসরণ করেন। সবসময় বিশ্বাস করি আপনার এমন কিছু করা উচিত যেটা নিয়ে আপনার স্বপ্ন আছে। তাই শুধুমাত্র একটা চাকরি খোঁজার আগে, নিজের ক্যারিয়ার খুঁজুন।

টিপস-৯ : ফেসবুক এবং বিভিন্ন ধরনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই সময়ে এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন যিনি কিনা কম থাকেন এই ভার্চুয়াল জগতে। বইপড়ার অভ্যাস যে কাউকে বুদ্ধিমান এবং জ্ঞানী হতে সাহায্য করে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj