স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বক্তারা : জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শেখ হাসিনা ফেরায় দেশ মর্যাদার আসনে

শনিবার, ১৮ মে ২০১৯

চট্টগ্রাম অফিস : আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ৩৮ বছর আগে ১৯৮১ সালের আজকের এই দিনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশে ফিরে এসেছিলেন বলেই আজকে বাংলাদেশ এ অবস্থায় উন্নীত হয়েছে।

দেশ বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পেরেছে। পাকিস্তানি ভাবধারার যে সামরিক স্বৈরাচার তখন জগদ্দল পাথরের মতো রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় চেপে বসেছিল তা সরিয়ে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্রকে সুরক্ষা দিয়েছেন। তাই শেখ হাসিনা বাঙালি জাতিসত্তা সুরক্ষার প্রধান অবলম্বন। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের শুধু অভূতপূর্ব উন্নতিই হয়নি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে একাত্তরের মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধী এবং বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে জাতির পাপ মোচন করেছেন।

গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে দারুল ফজল মার্কেটস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা এসব মন্তব্য করেন। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন। এ ছাড়া চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, খোরশেদ আলম সুজন, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য শফিকুল ইসলাম ফারুক, হাসান মাহমুদ শমসের, এড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, আবদুল আহাদ, লায়ন মো. হোসেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আবু তাহের, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এ ছাড়াও চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটসহ বিভিন্ন সংগঠন পৃথকভাবে দিবসটি পালন করে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj