ফেনী থেকে বিয়াম : হৃদয় ভাইয়ের নজরদারি

শনিবার, ১৮ মে ২০১৯

নুরুল আমিন হৃদয়

৩ মে শুক্রবার সকালে হোটেলে ঘুম থেকে উঠেই বন্ধু নাসির উদ্দিনকে ফোন দিলাম। জবাব এলো- হৃদয় ভাই আপনি কোথায়? অনুষ্ঠান তো শুরুর পথে বলেছিলেন…!

অতি তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে লুঙ্গি পরে দৌড় দেয়ার মুহূর্তে এই হৃদয় মিয়া প্যান্ট খুঁজে পেয়েছেন। তারপর ফকিরাপুল থেকে সিএনজি ভাড়া করে বন্ধু কাজী ইকবাল আহমেদ পরানকে নিয়ে বিয়ামের উদ্দেশে রওনা। কাজী সাহেবের তো ঢাকা শহরের অলিগলি বেশ চেনা। এ কারণেই তিনি জনকণ্ঠের সামনে সিএনজি থেকে নেমে পড়লেন। অতঃপর তার সঙ্গে আমাকেও বিয়াম খুঁজতে লেগে যেতে হলো। খুঁজতে খুঁঁঁঁঁজতে দিলু রোডের ঘিলু পেরিয়ে জুতো জোড়ার দফারফা শেষে এই হৃদয় ভাই হাজির বিয়ামে।

অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক হাজির হয়েছেন আমার মিতা তানভীর আহমেদ হৃদয়।

রজতজয়ন্তী উৎসবে বন্ধু মমিনুল ইসলামের টি-শার্টটা দারুণ মানিয়েছে তাকে। পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের আগামী ছবি ‘নিষ্ঠুর নায়ক’ ছবিতে প্রধান হিরো হিসেবে নায়ক লিটন খান চান্স পাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

তানভীর আলাদিন দেরিতে আসায় অনুষ্ঠানস্থলে তার মনোসংযোগের ঘাটতি ভালোভাবেই পরিলক্ষিত হয়েছে।

কুমিল্লার জয়ন্ত দেবকে দীর্ঘক্ষণ যাবৎ জনাব রেজা য়ারিফের সঙ্গে কানে ফিসফাস করতে দেখা গেছে। কী কারণে ফিসফাস পরে জানা যাবে বলে অনুমান। মনোয়ারা মনু ভাবী এবং উম্মে রেহানা কাজল ভাবীকেও একান্তে বসে সংলাপ করতে দেখা গেছে।

ইয়াকুব রানাকে অনুষ্ঠান চলাকালীন গুনগুনিয়ে গান গাইতে শোনা গেছে।

ঈশান মাহমুদের নগদ টাকা দিয়ে কেনা ০১-০২ নম্বর সিরিয়ালের দুটো টিকেট হারিয়ে গেছে। তাই র?্যাফেল ড্র চলাকালীন তার মনটা বেশ খারাপ ছিল বলে জানা গেছে।

শাহনাজ বেলীর গানের সঙ্গে পাঠক ফোরামের বিভাগীয় সম্পাদক মুকুল শাহরিয়ারের নাচ বেশ ভালো লেগেছে।

রেজাউর রহমানকে একবারের জন্যও আসনে বসতে দেখা গেছে বলে জানা যায়নি। সারাক্ষণ পরিবারের সেবায় ব্যস্ত দেখা গেছে। শেখ শামীমা নাসরীন পলিকে হৃদয় ভাইয়ের দেখভাল করতে দেখা গেছে। হৃদয় ভাই কেমন আছেন? এটুকু খেদমতই বা কম কী! পরে তার সঙ্গে আর কথা বলার সুযোগ হয়নি।

নানা-নাতি পর্বে ভোলানাথ পোদ্দার আর ওমর ফারুক দোলার অভিনয় অসাধারণ সুন্দর হয়েছে। যদিও নানা থেকে নাতিকে বেশ বড়সড় দেখা গেছে।

ভোলানাথ পোদ্দার, বোরহান উদ্দিন, দন্ত্যস সফিক, মরিযাদ হারুন, সরফরাজ উদ্দিন পারভেজ, কাজী সেলিম উদ্দিনসহ আয়োজক কমিটির সবার আন্তরিকতা টি-টুয়েনটি মুডেই ছিল।

মইনুল এইচ সিরাজীর সঙ্গে মিলনায়তনে একবার দেখা হয়েছে হৃদয় ভাইয়ের। তাই পেট পুরে কথা হয়নি।

র‌্যাফেল ড্র চলাকালীন সুব্রত শেখর ভক্ত, ঈশান মাহমুদসহ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক বোরহান উদ্দিন বলেছেন- প্রথম পুরস্কার টিভি তো নুরুল আমিন হৃদয় ফেনী নিয়ে যাবেন। শেষ পর্যন্ত অনেক কুপন কিনেও টিভি পর্যন্ত যেতে না পারায় তার লটারি ভাগ্য যে আগের মতো নেই, তা বোঝা গেছে।

গিয়াস ভাই, হাফিজ ভাইদের সঙ্গে দেখা হয়ে ভালো লেগেছে। আক্ষেপ থেকে গেছে সময় স্বল্পতায় গল্প জমানো হয়নি বলে।

অনুষ্ঠান চলাকালীন এবং শাহনাজ বেলীর গানের সঙ্গে বোরহান উদ্দিন, সালাম ফারুক, কাজী সেলিম উদ্দীন, মমিনুল ইসলাম লিটন, তনুশ্রী রায়, শামস সাগর, রয় অঞ্জন, সরফরাজ উদ্দিন পারভেজ, আহমেদ প্রান্ত, ওমর ফারুক দোলা, ঈশান মাহমুদ, মরিযাদ হারুন, জয়ন্ত দেব, সুব্রত শেখর ভক্ত, ওমর ফারুক দোলা হেলেদুলে নৃত্য পরিবেশন করেছেন। নৃত্য পরিবেশকারীদের মধ্য যাদের স্ত্রীরা মিলনায়তনে উপস্থিত ছিলেন তারা তাদের স্বামীর পারফরমেন্সে বেশ খুশি হয়ে বিশেষ পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন। সে পুরস্কার গৃহগমনের সঙ্গে সঙ্গেই দেয়া হয়েছে বলে হৃদয় ভাই সূত্রে প্রকাশ। বিস্তারিত সমঝদারমাত্রই বুঝে নেবেন।

ছবিতে মশিউর রহমান মামুনকে ভি (চিহ্ন) দেখাতে দেখা গেছে। তবে এই চিহ্ন দেখানোর কারণ এখনো জানা যায়নি।

বোরহান উদ্দিনের অসাধারণ উপস্থাপনা বেশ ভালো লেগেছে হৃদয় ভাইয়ের কাছে। স্যার রেজা য়ারিফকে দেওয়া পাঁচ লক্ষ গায়ানিজ ডলারের এত বড় চেক অতিরিক্ত ওজনের কারণে কোনো ড্রাইভার তা বহন করতে রাজি হয়নি বলে জানা গেছে। অবশেষে সেটি উনার কন্যা ফাহমিদা হায়দার সোমা এবং ভগ্নী সুলতানা শিপলু বিশেষ ক্রেনযোগে কাকরাইল পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছেন বলে জানা গেছে।

এত নজরদারির মূলে রয়েছে হৃদয় ভাইয়ের সফল টয়লেট ছিটকিনি ব্যবহারে। ২০১৬ সালে গাজীপুরের ‘জল ও জঙ্গল’র কাব্যর অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়ে আগের দিন ত‚র্ণা নিশিথা ট্রেনের টয়লেটে আটকে পড়ার অভিজ্ঞতা থেকে এবার টয়লেটে ছিটকানি না মারার চেষ্টা সফল হয়েছে…! এমনকি বিয়ামেও এর সফল প্রয়োগ ঘটেছে (যদি অন্যান্য ব্যবহারকারী কয়েকজনকে অতি চাপ নিয়ে হার্ডব্রেক করা লেগেছে)।

দিন শেষে এই ভাইটি মেসবাহ য়াযাদের কণ্ঠের চমৎকার গানের সঙ্গে সুর মিলিয়ে বলতে চায়, ‘আজ এই দিনটাকে মনের খাতায় লিখে রাখো/আমায় পড়বে মনে কাছে দূরে যেখানেই থাকো…!’

অতঃপর জয়তু পাঠক ফোরাম বলে হৃদয় ভাইয়ের নজরদারি বয়ান শেষ হলো।

:: সাহিত্য সম্পাদক, দৈনিক অজেয় বাংলা, ফেনী।

পাঠক ফোরাম'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj