মোস্তাফিজের অভিনন্দন

বুধবার, ১৫ মে ২০১৯

খেলা ডেস্ক : ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে শ্বাসরুদ্ধকর এক ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ করেছে ক্রিকেট বিশ্ব। ভারতের হায়দ্রাবাদে চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে শেষ বলে জয় পায় মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। গত মৌসুমে মুম্বাই দলে খেলেছিলেন টাইগার পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। নিজের সাবেক দলের প্রতি ভালোবাসা ও টান এখনো কমেনি তার। তাই তো রবিবার রাতে মুম্বাই তাদের চতুর্থ শিরোপা জিতে নেয়ার পর দলটিকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি বাংলাদেশি কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ।

মুম্বাইয়ের দেয়া ১৪৯ রানের জবাবে শেষ বল পর্যন্ত লড়াই করে ১৪৮ রানে থেমে যেতে হয় চেন্নাইকে। মুম্বাই জয় পায় এক রানে। রুদ্ধশ্বাস এই ফাইনাল দেখে কিছুটা বাকরুদ্ধ কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুরও। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে জানান, তার চমৎকার অভিব্যক্তি। সেই সঙ্গে অভিনন্দন জানিয়েছেন পুরনো দল ও অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে।

টুইটারে বাঁহাতি এই বাংলাদেশি পেসার লেখেন, বাকরুদ্ধ! এটা চরম রোমাঞ্চকর ছিল। জাসপ্রিত বুমরাহ বেশ উঁচুমানের বোলিং করেছেন এবং লাসিথ মালিঙ্গা শেষ ওভারে বেশ বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং করেছেন। রোহিত শর্মা এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে আরেকটি মুকুটের জন্য অভিনন্দন।

২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দুর্দান্ত অভিষেকের পর ২০১৬ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে প্রথম আইপিএল খেলার অভিজ্ঞতা হয় মোস্তাফিজের। প্রথম আসরেই ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দেন ফিজ। ১৬ ম্যাচ খেলে মাত্র ৬.৯০ ইকোনমিতে শিকার করেছিলেন ১৭টি উইকেট শিকার করে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন হায়দ্রাবাদের শিরোপা জয়ে। যা তাকে পাইয়ে দিয়েছিল আসরের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার। তবে ইনজুরির কারণে পরের মৌসুমে হায়দ্রাবাদের হয়ে মাত্র একটি ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ পান বাঁহাতি এই পেসার। ২০১৮ সালে আইপিএলের একাদশ আসরে নতুন দল মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে যোগ দেন কাটার মাস্টার। কিন্তু নীল জার্সিতে খুব বেশি সুখস্মৃতি নেই বাঁহাতি এ দুর্দান্ত পেসারের। মুম্বাইয়ের জার্সি গায়ে ৭ ম্যাচ খেলে ৮.৩৬ ইকোনমিতে ৭ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। এবার বিশ্বকাপ দুয়ারে থাকায় ইনজুরির ঝুঁকি থেকে দূরে রাখতেই মোস্তাফিজকে আইপিএল খেলার অনুমতি দেয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj