ট্রেন্ড : প্রিয় শিশুর ঈদ পোশাক

রবিবার, ১২ মে ২০১৯

শিশুদের ঈদের খুশিকে আরো রাঙাতে পারে বর্ণিল ঈদের পোশাক। ব্র্যান্ড শপগুলোতেও ডিজাইন তারতম্যে রকমারি ঈদ পোশাক বাড়ির এই কনিষ্ট শিশুটির জন্য প্রস্তুত। তাই ঈদে শিশুদের জামাটা হতে হয় অন্য রকম। আবহাওয়া, চলতি ধারা আর নানান নকশায় বেশ রঙিন হবে এবার শিশুদের ঈদ।

শিশুদের ঈদের খুশিকে আরো রাঙাতে পারে বর্ণিল ঈদের পোশাক। ব্র্যান্ড শপগুলোতেও ডিজাইন তারতম্যে রকমারি ঈদ পোশাক বাড়ির এই কনিষ্ট শিশুটির জন্য প্রস্তুত। তাই ঈদে শিশুদের জামাটা হতে হয় অন্য রকম। আবহাওয়া, চলতি ধারা আর নানান নকশায় বেশ রঙিন হবে এবার শিশুদের ঈদ।

এবার শিশুদের পোশাকে প্রিন্টেই অনেক রকম কাজ থাকছে। হাতের কাজ, কারচুপি, অ্যাপ্লিক, রিবনের প্রভাব রয়েছে কমবেশি। প্রজাপতির ডানা, কাপড়ের ফুল, টুনটুনি পাখি, সবই দেখা গেছে মোটিফ হিসেবে। শিশুর যা কিছু ভালো লাগে তাই প্রাধান্য পাচ্ছে ঈদের পোশাকগুলোয়। ছোট ছেলেদের পোশাকেও তার ছাপ। ছেলেদের শার্ট বা ফতুয়ায় প্রাধান্য পাচ্ছে হাফহাতা এবং হাতাছাড়া কাট। লং প্যান্টের বদলে কোয়ার্টার। সাদা পাঞ্জাবির পাশাপাশি রঙিন পাঞ্জাবি বেশ পছন্দ ছেলেশিশুদের। ক্যাটস আই এর ডিজাইন বিভাগের প্রধান ও পরিচালক রুম্মাইলা সিদ্দিকী জানান, “ছেলেমেয়ে উভয় শিশুদের পোশাকের ক্ষেত্রেই প্রাধান্য পেয়েছে উজ্জ্বল রংগুলো। মেয়ে শিশুদের ফ্রকে এবার লেইস, নেট আর সার্টিন ফিতার ব্যবহারের পাশাপাশি বাহারি বোতামও নজর কাড়বে। ফ্রক বা সালোয়ার-কামিজের কাটেও এসেছে বৈচিত্র্য। নিচের দিকটা কোনোটার গোলাকৃতি হলেও কোনোটা আবার কোনা হয়ে গেছে। অথবা ফ্রিল ও লেইস বসানো জমকালো ফ্রক। ছেলে শিশুদের জন্য শেরওয়ানি কাটের পাঞ্জাবিতে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে সাতন্ত্র ফিটিংস প্যাটার্নকে।”

অনেক শিশুই ঈদের দিন একটু বড়দের মতো করে সাজতে ভালোবাসে। মা-খালাদের মতো সালোয়ার-কামিজ ও শাড়ি, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়–য়া বড় বোনের মতো লং স্কার্ট বা টপসও চাই শিশুদের। বয়স কম, তাই বলে শিশুদের ফাঁকি দেওয়ার জো নেই। যারা একটু লেখাপড়া শিখেছে, তারা বিভিন্ন পত্রিকার ঈদ ফ্যাশনের পাতা নিয়ে মা-বাবার কাছে নির্দিষ্ট নকশার পোশাকটির বায়না ধরছে। আবার অনেকের বায়না, ‘এবার কিন্তু মার্কেটে নিয়ে যেতে হবে এবং আমার পছন্দের জিনিসটিই কিনে দিতে হবে।’ ছেলেমেয়ে উভয় শিশুদের পোশাকের ক্ষেত্রেই প্রাধান্য পেয়েছে উজ্জ্বল রংগুলো। মেয়ে শিশুদের ফ্রকে এবার লেইস, নেট আর সার্টিন ফিতার ব্যবহারের পাশাপাশি বাহারি বোতামও নজর কাড়বে। ফ্রক বা সালোয়ার-কামিজের কাটেও এসেছে বৈচিত্র্য। নিচের দিকটা কোনোটার গোলাকৃতি হলেও কোনোটা আবার কোনা হয়ে গেছে। অথবা ফ্রিল ও লেইস বসানো জমকালো ফ্রক। ছেলে শিশুদের জন্য শেরওয়ানি কাটের পাঞ্জাবিতে করা হয়েছে কাতানের কাটওয়ার্ক। কোনোটিতে করা হয়েছে এমব্রয়ডারি। সুতির তৈরি সাদামাটা রঙিন পাঞ্জাবিও রয়েছে। এর সঙ্গে মানানসই হবে একরঙা সাদা কিংবা লাল-কালোর চুড়িদার।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj