লিভারপুল এফসি : ক্লাব পরিচিতি

মঙ্গলবার, ৭ মে ২০১৯

লিভারপুল ফুটবল ক্লাব ইংল্যান্ডের লিভারপুল শহরের একটি পেশাদার ফুটবল ক্লাব। ফুটবল বিশে^ তারা দি রেড নামে পরিচিত। লিভারপুল ফুটবল ক্লাব ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ ফুটবল লিগ প্রিমিয়ার লিগের একটি দল। লিভারপুলের লর্ড মেয়র ও ধনকুবের জন হলডিংয়ের হাত ধরে ১৮৯২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় লিভারপুল ফুটবল ক্লাব। লিভারপুল ফুটবল ক্লাব সৃষ্টির পিছনে রয়েছে একটি মজার ঘটনা। লিভারপুল ফুটবল ক্লাবের হোম গ্রাউন্ড হচ্ছে এনফিল্ড যেটি তারা তাদের প্রতিষ্ঠার পর থেকেই হোম গ্রাউন্ড হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। কিন্তু এটি ছিল মূলত আরেক প্রিমিয়ার লিগ দল এভারটনের হোম গ্রাউন্ড। এনফিল্ড-এর মালিক ছিলেন লিভারপুল ফুটবল ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা জন হলডিং কিন্তু এভারটন ক্লাব কর্তৃপক্ষ ও হলডিংয়ের মধ্যে ভাড়া-সংক্রান্ত ব্যাপার নিয়ে একটি দ্ব›েদ্বর সৃষ্টি হয় এবং সেই দ্ব›েদ্বর পর ১৮৭৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এভারটন এনফিল্ড ছেড়ে তাদের নতুন গ্রাউন্ড গডিসন পার্কে চলে যান। আর তার পরেই ১৮৯২ সালে হলডিং প্রতিষ্ঠা করেন লিভারপুল ফুটবল ক্লাব।

লিভারপুল ১৯৭৭, ১৯৭৮, ১৯৮১, ১৯৮৪ ও সর্বশেষ ২০০৫ সালে ইউরোপের সবচেয়ে মর্যাদাকর আসর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে, যা যে কোনো ইংলিশ ক্লাব থেকে বেশি সংখ্যকবার। তা ছাড়া তারা ৩ বার উয়েফা কাপ, ৩ বার উয়েফা সুপার কাপ, ১৮ বার লিগ টাইটেল, ৭ বার এফএ কাপ, ৮ বার লিগ কাপ এবং ১৫ বার এফএ কমিউনিটি শিল্ড কাপ এ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। আরো অন্যান্য পেশাদার ক্লাবের মতো লিভারপুল ফুটবল ক্লাবও অনেক চড়াই-উৎরাইয়ের মধ্যে দিয়ে আজকের এই অবস্থানে পৌঁছেছে। তাদের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের মধ্যেও রয়েছে দুটি কালো অধ্যায়, যা সব সময় লিভারপুল সমর্থকদের তাড়িয়ে বেড়ায়, এটির একটি হচ্ছে হেসেল স্টেডিয়াম ডিজেস্টার এবং অন্যটি হচ্ছে হিলসবোরো স্টেডিয়াম ডিজেস্টার। হেসেল স্টেডিয়াম ডিজেস্টারটি সংঘটিত হয় লিভারপুল বনাম জুভেন্তাস চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ১৯৮৫ ফাইনাল ম্যাচে। স্টেডিয়ামের দেয়ালের নিচে চাপা পড়ে ৩৯ জন জুভেন্তাস সমর্থক নিহত হয়, যার বেশির ভাগই ছিল ইতালীয় এবং দ্বিতীয়টি সংঘটিত হয় ১৯৮৯ লিভারপুল বনাম নটিংহাম ফরেস্ট এফএ কাপ সেমিফাইনাল ম্যাচে। অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে সেই ম্যাচে ৯৪ জন লিভারপুল সমর্থক নিহত হয়।

লিভারপুল বর্তমান ফুটবল বিশে^ অত্যন্ত শক্তিশালী একটি ফুটবল ক্লাব। দলটির বর্তমান ক্যাপ্টেন হচ্ছেন জর্ডান হ্যান্ডারসন এবং ম্যানেজার জার্গেন ক্লপ। দলটিতে রয়েছে সালাহ, মানে ও ফিরমিনোর মতো বিশ^সেরা ফুটবলার।

:: খেলা ডেস্ক

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj