প্রযুক্তি সংবাদ

রবিবার, ৫ মে ২০১৯

অ্যাপলকে টপকে দ্বিতীয় অবস্থানে হুয়াওয়ে

বছরের প্রথম প্রান্তিকেই সুখবর পেল বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় এ বছর ৫০ ভাগ প্রবৃদ্ধি হয়েছে তাদের। ৩০ ভাগ বিক্রি হ্রাস পাওয়া অ্যাপলকে টপকে আবারো দ্বিতীয় স্থানে চলে এসেছে চীনা এ প্রতিষ্ঠানটি। বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারে এখন হুয়াওয়ের শেয়ার ১৯ ভাগ। এ যাবতকালের মধ্যে এটিই সর্বোচ্চ শেয়ার তাদের।

রিসার্চ ফার্ম আইডিসি ও কাউন্টারপয়েন্টের নতুন প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য এসেছে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, এক নম্বর অবস্থানে থাকা স্যামসাং এর সঙ্গে হুয়াওয়ের মার্কেট শেয়ারের তফাৎ ক্রমশ কমছে। আইডিসি ভাইস প্রেসিডেন্ট রায়ান রেইথ এক প্রতিবেদনে বলেন, স্যামসাং, হুয়াওয়ে ও অ্যাপলের এই নতুন র‌্যাংকিং ২০১৯ সাল জুড়ে থাকবে। ২০১৮ সালে প্রথম অ্যাপলকে টপকে যায় হুয়াওয়ে। এবার হুয়াওয়ে অ্যাপলের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছে। এই সময়ে ৫৯.১ মিলিয়ন স্মার্টফোন শিপমেন্ট করেছে যেখানে অ্যাপল করেছে ৪২ মিলিয়ন।

:: ডটনেট ডেস্ক

৫৬৮ মিলিয়ন ডলারের নতুন বিনিয়োগ পেয়েছে ইউআইপাথ

শীর্ষ স্থানীয় রোবোটিক প্রসেস অটোমেশন কোম্পানি ইউআইপাথ ৫৬৮ মিলিয়ন ডলারের নতুন বিনিয়োগ পেয়েছে। এর মাধ্যমে পঞ্চমবারের মতো ব্যবসা পরিচালনায় তহবিল পেল সাত বিলিয়ন ডলারের কোম্পানিটি। ড্রাগনইয়ার, ওয়েলিংটন, স্যান্ডস ক্যাপিটালকে সঙ্গে নিয়ে তথ্য প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগকারী সংস্থা কোটু এ তহবিল সংগ্রহে নেতৃত্ব দিয়েছে। আগের ধাপগুলোতে বিনিয়োগ তহবিল সংগ্রহকারী প্রতিষ্ঠান একসেল এবং ক্যাপিটাল জি ও সেক্যুয়াও এবারের প্রচেষ্টায় যোগ দেয়। আইভিপি ও ম্যাডরোনা ভেঞ্চার গ্রুপসহ বিদ্যমান বিনিয়োগকারীরাও এই ধাপে যোগ দিয়েছে। ৭ বিলিয়ন ডলার মূল্য নির্ধারণের পর ইউআইপাথ এখন বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল এবং সর্বোচ্চ মূল্যমানের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) এন্টারপ্রাইজ সফটওয়্যার কোম্পানিগুলোর একটিতে পরিণত হয়েছে। ইউআইপাথ এর সিরিজ এ ফান্ডিং শেষ করে ২০১৭ সালের এপ্রিলে। ওই সময় থেকে এটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক অর্জন শুরু করে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি রোবোটিক প্রসেস অটোমেশন (আরপিএ) কমিউনিটি এখন ইউআইপাথের। এর রয়েছে ২০০টি দেশে ৪ লাখের বেশি ব্যবহারকারী। শীর্ষ ১০ ফরচুন ৫০০ গ্লোবালের ৮টিই এর গ্রাহক। কোম্পানিটি ইতোমধ্যে প্রতিরক্ষা গ্রেড নিরাপত্তাসহ ইউআইপাথ এন্টারপ্রাইজ আরপিএর ছয়টি সংস্করণ বাজারে ছেড়েছে।

:: ডটনেট ডেস্ক

বাংলাদেশি আইসিটি শিক্ষার্থীদের প্রশংসা

বিশ্বের শীর্ষ প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের সবচেয়ে বড় সিএসআর প্রোগ্রাম ‘সিডস ফর দ্য ফিউচার ২০১৯’-এর সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। চীনের শেনজেনে হুয়াওয়ের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই সমাপনী অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাছাইকৃত ১০ জন আইসিটি মেধাবী শিক্ষার্থীর ভূয়সী প্রশংসা করেন। তারা বলেন, বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করে হুয়াওয়ে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ে তুলতে গভীরভাবে সহায়তা করে চলেছে। ‘ভিশন ২০২১’ বাস্তবায়নে হুয়াওয়ের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এ বছর উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হুয়াওয়ের পাবলিক রিলেশনশিপ ডিরেক্টর ইয়ান লি ও ইথিওপিয়ার আরো ১০ জন শিক্ষার্থী। চলতি বছর শিক্ষার্থীরা চীনে বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ পেয়েছে ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হয়েছে। বেইজিংয়ে তারা চীনা ভাষার ওপর কোর্স করেছে এবং চাইনিজ ক্যালিগ্রাফি ও তাইজি সম্পর্কে ধারণা পেয়েছে। শেনজেনে গিয়ে শিক্ষার্থীরা টেলিকমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক, আইসিটির মূল প্রযুক্তিসমূহ, মোবাইল কমিউনিকেশনের বিভিন্ন জেনারেশন (১জি থেকে ৫জি), কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স), বিগ ডেটা, ক্লাউড কম্পিউটিং, এজ কম্পিউটিং, ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি) এবং ৪জি ও ৫জি বেইজ স্টেশন তৈরি সম্পর্কিত বিভিন্ন ধারণা ও প্রায়োগিক শিক্ষা পেয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারিতে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে এই প্রতিযোগিতা শুরু হয়। বাংলাদেশ শীর্ষস্থানীয় পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাছাই করে ১০ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত করা হয়।

:: ডটনেট ডেস্ক

ডট নেট'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj