ফণী আছড়ানোর আগেই : ১৫ সেকেন্ডের ঝড়ের তাণ্ডব মেদিনীপুরে

শনিবার, ৪ মে ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : ওড়িশা থেকে এ রাজ্যে ঢুকে পড়েছে ফণী। উপক‚লবর্তী জেলাগুলোতে প্রবল বৃষ্টি ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। সঙ্গে প্রবল ঝড়ো হাওয়া। যদিও এখনো এ রাজ্য থেকে অনেকটাই দূরে রয়েছে ফণী। বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ কলকাতা থেকে ফণীর অবস্থান কলকাতা থেকে ৩৪৫ এবং দিঘা থেকে ২০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়ে দিয়েছে, ওড়িশা ছেড়ে রাজ্যে আছড়ে পড়তে শনিবার ভোররাত হবে। ঝড়ের শক্তিও অনেকটাই কমবে। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছিল, সন্ধ্যার পর থেকেই ওড়িশা লাগোয়া এ রাজ্যের জেলাগুলোতে ঝড় শুরু হবে। সেই ঝড়ের গতিবেগ হবে ঘণ্টায় ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার। ধীরে ধীরে সেই ঝড়ের গতিবেগ বাড়তে থাকবে বলে জানাচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর। মাঝরাত নাগাদ সেই ঝড়ই ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটারের কাছাকাছি গতিবেগ নেবে। উপক‚লবর্তী এলাকায় তা ১১৫-তে পৌঁছবে বলে পূর্বাভাস।

এর মধ্যেই এ দিন সকাল সওয়া ১০টা নাগাদ মাত্র ১৫ সেকেন্ডের একটি দমকা হাওয়া ফণীকে ঘিরে মেদিনীপুরবাসীর আতঙ্ক কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিল। একটা ঝড় বয়ে যায় মেদিনীপুর শহরের মির্জাবাজার এলাকার উপর দিয়ে। সেই ঝড়ের শক্তি এতটাই বেশি ছিল যে আশপাশের প্রায় ২৫টি বাড়ির চাল উড়ে গিয়েছে। কোনোটা আবার বাঁশের কাঠামো নিয়ে পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। শনিবার ভোর রাতে পশ্চিমবঙ্গীয় উপক‚লে ফণীর আছড়ে পড়ার কথা থাকলেও, শুক্রবার সকাল থেকেই কিন্তু কলকাতা শহরের রাস্তাঘাটে সেই আতঙ্কের প্রতিফলন দেখা গিয়েছে। হাওড়া এবং শিয়ালদহ দুই শাখায় লোকাল ট্রেনগুলোয় ভিড় তুলনামূলক কম ছিল।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj