ঝড়ের সময় জন্ম নেয়ায় শিশুটির নাম রাখা হয়েছে ‘ফণী’

শনিবার, ৪ মে ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : আর ৮-১০টি দিনের মতো শুক্রবারের সকাল স্বাভাবিক ছিল না ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য উড়িশার মানুষের। কারণ গত প্রায় এক সপ্তাহ ধরে এ রাজ্যের লোকজন ‘ফণী’ নামক উৎকণ্ঠায় রাত-দিন পার করছেন। তবে প্রকৃতি যে তার নিজ খেয়ালেই চলে। যে খেয়ালে নি¤œচাপ থেকে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয়া ফণীতে কাঁপছে ভারত ও বাংলাদেশের উপক‚লীয় এলাকার কয়েক লাখ মানুষ। এর মধ্যে সকাল ৯টা নাগাদ প্রায় ২০০ কিলোমিটার বাতাসের গতিবেগে উড়িশা উপক‚লে আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় ফণী। তাণ্ডব চালিয়ে এরইমধ্যে কেড়ে নিয়েছে ৬ প্রাণ। উপড়ে পড়েছে গাছপালা, ঘরবাড়ি। একদিনে ফণী যখন তার তাণ্ডব চালাচ্ছে অন্যদিকে উড়িশার রেলওয়ে হাসপাতালে এক মায়ের কোলজুড়ে এসেছে এক কন্যা শিশু। আর ঝড়ের মধ্যে জন্ম নেয়ায় শিশুটির নাম ঘূর্ণিঝড়ের সঙ্গে মিলিয়ে রাখা হয়েছে ফণী।

এ বিষয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রকাশিত খবরে জানা গেছে, বেলা ১১টা ৩ মিনিটের দিকে মাঞ্চেসরের রেলওয়ের কোচ রক্ষণাবেক্ষণ কারখানার এক নারী কর্মী জন্ম দিয়েছেন এক কন্যা শিশুর। মা-শিশু দুজনই ভালো আছেন। ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশের দেয়া নাম। এর অর্থ সাপ বা ফণা তুলতে পারে এমন প্রাণী। ইংরেজিতে (ঋধহর) লেখা হলেও এর উচ্চারণ ‘ফণী’।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj