রাশিয়া তদন্তের সমর্থকরা অবৈধভাবে ক্ষমতা নিতে চেয়েছিল : ট্রাম্প

শনিবার, ৩০ মার্চ ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : রিপাবলিকান শিবির ও রাশিয়ার ‘সম্ভাব্য আঁতাত’ নিয়ে স্পেশাল কাউন্সেল রবার্ট মুলারের তদন্তকে যারা সমর্থন দিয়েছিল, তারা ২০১৬-র নির্বাচনের ফল উল্টে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলে চেষ্টা করেছিল বলে অভিযোগ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার মিশিগানে রিপাবলিকান পার্টির এক প্রচার সমাবেশে তিনি এ অভিযোগ করেন বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। ট্রাম্প ক্ষমতায় বসার কয়েক মাস পর মার্কিন বিচার বিভাগ ২০১৬-র প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারে রিপাবলিকান শিবির ও মস্কোর মধ্যে কোনো আঁতাত হয়েছিল কিনা এবং এ সংক্রান্ত এফবিআইয়ের তদন্তে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাধা দিয়েছিলেন কিনা তা খতিয়ে দেখতে মুলারকে স্পেশাল কাউন্সেল হিসেবে নিয়োগ দেন।

দীর্ঘ ২২ মাস পর গত সপ্তাহেই মুলার তার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন; ওই প্রতিবেদনে ট্রাম্প শিবিরের কারও সঙ্গেই রাশিয়ার কোনো আঁতাত ছিল না বলে রবিবার মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বারের সারসংক্ষেপে বলা হয়েছে। মুলারের তদন্তে যুক্তরাষ্ট্র ‘আঘাত পেয়েছে’ উল্লেখ করে ট্রাম্প তার বিরোধীদের ‘পরাজিত’ অ্যাখ্যা দিয়েছেন। তদন্ত যে অবশেষে সমাপ্ত হতে যাচ্ছে, তাতে প্রকাশ করেছেন উল্লাস। তিন বছর ধরে বলা মিথ্যা, কলঙ্ক লেপন ও অপবাদের পর অবশেষে শেষ হতে যাচ্ছে রাশিয়া (তদন্ত) নিয়ে ধাপ্পাবাজি। আঁতাতের বিভ্রম কেটে গেছে। রাশিয়া নিয়ে এ উইচ হান্টের পরিকল্পনা ছিল তাদের, যারা নির্বাচনে হারের পর নিষ্পাপ মার্কিনিদের ব্যবহার করে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের চেষ্টা করেছিল। অনেক নিষ্পাপ মার্কিনি এ বিস্তৃত ধাপ্পাবাজির শিকার হয়েছে, বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

স্পেশাল কাউন্সেলের ৩০০ পৃষ্ঠার ওই প্রতিবেদনে ‘ট্রাম্প-রাশিয়া’ আঁতাতে প্রমাণ না পাওয়ার কথা বলা হলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ সংক্রান্ত এফবিআইয়ের তদন্তে বাধা দিয়েছিলেন কিনা তার সুস্পষ্ট উত্তর নেই। গ্র্যান্ড র‌্যাপিডসে হওয়া এ প্রচার সমাবেশে ট্রাম্প ডেমোক্রেট পার্টি ও গণমাধ্যমের ওপরও একহাত নিয়েছেন। তারা অসুস্থ, তাদের দায় খতিয়ে দেখা উচিত; কারণ তারা মিথ্যা বলেছে, এটা যে মিথ্যা, তা তারা জানত, বলেছেন তিনি।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj