ভিডিও সম্পাদনা ল্যাপটপেই

রবিবার, ১০ মার্চ ২০১৯

যখন ভিডিও সম্পাদনায় কম্পিউটারের কোনো বিকল্প নেই এমন ধারণা সবার; তখন কম্পিউটার নির্মাতারা ভিডিও সম্পাদনার জন্য ডেস্কটপের বিকল্প নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে। সে কারণে কম্পিউটারের পাশাপাশি তারা ভিডিও সম্পাদনার জন্য ল্যাপটপকেই বেশি প্রাধাণ্য দিয়ে তৈরি করছে হাই কনফিগারেশনের ল্যাপটপ।

ম্যাকবুক প্রো : অ্যাপলের শক্তিশালী ল্যাপটপ ম্যাকবুক প্রো। কোনো প্রকার বিড়ম্বনা ছাড়াই ডিভাইসটিতে ভিডিও সম্পাদনার কাজ করা যায়। ডিভাইসটিতে ২ দশমিক ৯ গিগা হার্টজের কোর-আই৭ প্রসেসর আছে। ডিভাইসটির কোর-আই৯ প্রসেসর-সংবলিত একটি সংস্করণও বাজারে মিলছে। এতে গ্রাফিকস হিসেবে আছে ৪ গিগাবাইট মেমোরির রেডন প্রো ৫৫৫। ১৬ গিগাবাইট র‌্যামের এই ল্যাপটপে ২৮৮০ বাই ১৮০০ পিক্সেল রেজল্যুশনের ১৫ দশমিক ৪ ইঞ্চির রেটিনা ডিসপ্লে রয়েছে। ডিভাইসটিতে ২৫৬ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভ আছে, যা সর্বোচ্চ ৪ টেরাবাইট পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।

ডেল এক্সপিএস ১৫ : ডেলের এই ল্যাপটপকে ভিডিও সম্পাদনার জন্য সবচেয়ে ভালো উইন্ডোজ ডিভাইস মনে করা হয়। ইন্টেল কোর-আই৫ প্রসেসর রয়েছে এতে। এর কোর-আই৭ প্রসেসর-সংবলিত সংস্করণ বাজারে পাওয়া যায়। এতে ১৫ দশমিক ৬ ইঞ্চির ফোরকে আল্ট্রা এইচডি ডিসপ্লে রয়েছে। ৮ গিগাবাইট র‌্যামের এই ডিভাইসে ২৫৬ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভ আছে। এর র‌্যাম সর্বোচ্চ ১৬ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ডেল এক্সপিএস ১৫-এ গ্রাফিকস হিসেবে আছে এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ১০৫০।

সারফেস বুক ২ : ভিডিও সম্পাদনার জন্য মাইক্রোসফটের সারফেস বুক ২ দারুণ একটি ল্যাপটপ। ইন্টেলের কোর-আই৭ প্রসেসর আছে ডিভাইসটিতে। এতে গ্রাফিকস হিসেবে আছে ইন্টেল ইউএইচডি গ্রাফিকস ৬২০। ল্যাপটপটির একটি সংস্করণে এনভিডিয়া জিটিএক্স ১০৬০ গ্রাফিকস কার্ড আছে। ডিভাইসটিতে ৩২৪০ বাই ২১৬০ পিক্সেল রেজল্যুশনের ১৫ ইঞ্চি পিক্সেলসেন্স ডিসপ্লে রয়েছে। ১৬ গিগাবাইট র‌্যামের এ ল্যাপটপে ২৫৬ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভ আছে, যা ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।

ইয়োগা ৭২০ : ভিডিও সম্পাদনার জন্য ১ হাজার ডলারের মধ্যে সবচেয়ে ভালো উইন্ডোজ ল্যাপটপ লেনোভো ইয়োগা ৭২০। ডিভাইসটিতে ইন্টেল কোর-আই৫ প্রসেসর আছে। কোর-আই৭ প্রসেসর সংবলিত একটি সংস্করণও বাজারে মিলছে। ডিভাইসটিতে এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ১০৫০ গ্রাফিকস কার্ড আছে। ডিভাইসটিতে ১৯২০ বাই ১০৮০ পিক্সেল রেজল্যুশনের ১৫ দশমিক ৬ ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসপ্লে আছে। এতে ২৫৬ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভ আছে, যা সর্বোচ্চ ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।

এইচপি প্যাভিলিয়ন ১৫ : ভিডিও সম্পাদনার জন্য ৫০০ ডলারের মধ্যে সবচেয়ে ভালো ও শক্তিশালী ল্যাপটপ এইচপি প্যাভিলিয়ন ১৫। ডিভাইসটিতে এএমডি ডুয়াল-কোর এ৯ প্রসেসর রয়েছে।

ইন্টেল কোর-আই৭ প্রসেসর সংবলিত একটি সংস্করণও বাজারে পাওয়া যায়।

এতে রয়েছে এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ১০৫০ গ্রাফিকস কার্ড। ৫১২ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভ আছে, যা সর্বোচ্চ ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।

:: ডটনেট ডেস্ক

ডট নেট'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj