হেশেলে ঋতুপর্ণা শিক্ষানবিস শুভ

শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মেলা ডেস্ক : গতকাল ২২ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত-আরিফিন শুভ জুটির দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘আহারে’। ছবিটি পরিচালনা করেছেন রঞ্জন ঘোষ। ছবির ট্রেলার ও গান রিলিজ হওয়ার পর থেকেই ভালো সাড়া পাচ্ছিলেন ঋতু।

হেশেলে ঋতুপর্ণা, আর তার শিক্ষানবিস আরিফিন শুভ। এটাই ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর এই ছবির প্রেক্ষাপট। কিন্তু গল্পের শুরু রান্না দিয়ে হলেও শেষ পর্যন্ত গন্তব্য প্রেম। আহারে খাবার জন্যও সত্যি আবার তার থেকেও বড় অভিব্যক্তি প্রেমের জন্য। ঋতুপর্ণা জন্মদিনের দিনই ঘোষণা হয়েছিল এ ছবির। দুই বাংলার বিভিন্ন পদ তো বটেই, তার সঙ্গে এদেশের রান্নাঘরে ওই দেশের সেফ খুঁজে পেয়েছে তার অনুপ্রেরণা। ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় দেখা গিয়েছে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও বাংলাদেশের আরিফিন শুভকে। নামী সেফকে সেই ফিরে আসতে হয় আটপৌরে রান্নাঘরে, শিখতে হয় মাটির সঙ্গে একাত্ম হওয়ার সন্ধান। সেকারণেই ঋতুপর্ণার শিক্ষানবিশ হয় সে। রান্না ও খাবারের মধ্যেও যে প্রেম লুকিয়ে রয়েছে তারণ বহিঃপ্রকাশ ঘটবে ছবিতে। এছাড়াও রয়েছে দায়িত্ববোধের গল্প, হিন্দু-মুসলিম তরজার ওপরে উঠে মানুষের কাহিনী বলার চেষ্টা। আহা রে ছবির সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন স্যাভি গুপ্ত। উল্লেখ করার মত ছবির সিনেমাটোগ্রাফি। হরি নায়ার রয়েছেন ক্যামেরার নেপথ্যে। দহনের পর আবার বাংলা ছবিতে। ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি আহা রে প্রযোজনাও করেছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর প্রযোজনা সংস্থা ভাবনা, আজ ও কাল।

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত বলেন, রঞ্জন ঘোষের আগের ছবি ‘রঙ বেরঙের কড়ি’ দারুণ ছিল। কয়েকটি চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছে। বরাবরই ও ছবিতে নতুন কনসেপ্ট নিয়ে আসার চেষ্টা করে। ‘আহারে’তে প্রেমকে নতুনভাবে তুলে আনা হয়েছে। প্রেম ব্যাপারটা যে মানুষের একদম ভেতর থেকে আসে- সেটা স্ক্রিপ্টে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এতে পারিবারিক মূল্যবোধ আছে। খাবারের মধ্যেও যে আলাদা রসায়ন তৈরি হতে পারে সেটা দেখার জন্য ছবিটি উদাহরণ হতে পারে। খুব আন্তরিকভাবে ছবিটি করেছি। আমি ও আরিফিন শুভ দুজনেই খুব খেটেছি শুটিংয়ের সময়। এতে নতুন ধরনের কনসেপ্ট নিয়ে আসার চেষ্টা করছি। দিনে দিনে সিনেমার ভাষা বদলাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় ভিন্নধর্মী এই কনসেপ্ট নিয়ে দর্শকের সামনে আসছি আমরা। ছবিতে আরিফিন শুভর সঙ্গে আমার রসায়নটা দারুণ। ইন্ডিয়াতে এ ধরনের কাজ বরাবরই হচ্ছে। বিশেষ করে ‘উড়ি’, মন মর্জিয়া’, ‘বাঁধাই হো’র মতো নতুন ধরনের গল্পের ছবি দর্শকরা গ্রহণ করছে। রাজকুমার রাওয়ের ‘স্ত্রী’ ছবিটার কথায় বলা যাক না; দারুণভাবে গ্রহণ করেছে দর্শক। রাজকুমার রাওয়ের সব ছবিই তো এই ধরনের। আমি নিজেও ‘অলিক সুখ’, ‘রাজকাহিনী’র মতো ভিন্নধর্মী গল্পে কাজ করেছি। তারই ধারাবাহিকতায় ‘আহারে’ করছি। এতে প্রেম, ভালোবাসার সঙ্গে খাবারকেও ছবির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়বস্তু হিসেবে ধরা হয়েছে। এতে বাংলাদেশ ও কলকাতার বন্ধন সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে।

একটি সিনেমার গল্পের পর আরিফিন শুভর সঙ্গে এটি তার দ্বিতীয় কাজ। ‘আহারে’তে শুভর সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে ঋতুপর্ণা বলেন, ছবিতে আরিফিন শুভর প্রথম উপস্থিতিটাই এককথায় অসাধারণ। ওর অভিনয় ক্ষমতা খুব ভালো। ভালো ডিরেক্টরের হাতে পড়লে অনেক ভালো করবে। ওর ভেতরের শিল্পীসত্তা পরিচালক ঠিকঠাক মতো বুঝলে ছেলেটা অনেক এগিয়ে যাবে। এই ছবির জন্য আমিই ওকে পছন্দ করেছিলাম।

এ ছাড়াও সম্প্রতি ঋতুপর্ণার ‘শাহজাহান রিজেন্সি’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। সামনে রয়েছে উইন্ডোজের মুখার্জি দার বউ, বেলাশুরুর মতো ছবি। শিগগিরই ‘জ্যাম’ ছবির শুটিং করতে ঢাকায় আসবেন। পাশাপাশি ‘গাঙচিল’ চলচ্চিত্রে একটি অতিথি চরিত্রে অভিনয় করবেন।

মেলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj