গোলটেবিলে বক্তারা : মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরো কঠোর হতে হবে

বুধবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : দক্ষিণ এশিয়ার স্থিতিশীলতার স্বার্থে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরো শক্তভাবে চাপ প্রয়োগ করতে হবে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স (আইডিইবি) ভবনে পল্লী-কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশনের ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ড. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে এক গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা এ কথা বলেন। আইডিইবি ‘রোহিঙ্গা সমস্যা-বৈশি^ক চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এ আলোচনার আয়োজন করে।

এতে বক্তারা বলেন, নিজস্ব সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও বাংলাদেশ নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বিশে^ মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফল ক‚টনৈতিক তৎপরতায় বিষয়টি আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে ব্যাপক আলোচিত ও সমর্থন যুগিয়েছে। কিন্তু দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ দুটি দেশ ভারত ও চীনের আন্তরিক সহযোগিতা ছাড়া এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান সম্ভব হবে না।

বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে এ বিশাল রোহিঙ্গা শরণার্থীর ভার বহন করা সম্ভব হবে না উল্লেখ করে তারা বলেন, সংকটটি মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সমস্যা থেকে সৃষ্ট। তাই এর সমাধানে মিয়ানমার সরকারকেই এগিয়ে আসতে হবে। এ সংকট দীর্ঘদিন চলতে থাকলে উগ্রপন্থার জন্ম নেবে, যা পুরো দক্ষিণ এশিয়াসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য হুমকির কারণ হবে বলেও মনে করেন তারা। বক্তারা বলেন, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনী যে বর্বোরচিত ও ন্যক্কারজনক হামলা করেছে- তা চরম মানবাধিকার লঙ্ঘন। মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য দেশটির সেনাবাহিনীকে বিচারের সম্মুখীন করা উচিত। বক্তারা অবিলম্বে পূর্ণাঙ্গ নাগরিক সুবিধা দিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মিয়ানমারে ফিরে নেয়ার জন্য অং সান সুকির সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া উইংয়ের মহাপরিচালক দেলোয়ার হোসেন বলেন, মিয়ানমারের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে কয়েকটি চুক্তি হয়েছে। আশা করছি, এ সমস্যার সমাধান একটু দেরিতে হলেও হবে। অবশ্যই বৈধ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমরা তাদের ফেরত পাঠাতে সক্ষম হব। অনুষ্ঠানে বিষয়ের ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সুইনবার্ন ইউনিভার্সিটি, অস্ট্রেলিয়ার বিজনেস এন্ড ল’ ফ্যাকাল্টির প্রফেসর ক্রিস্টিন জব ও আন্তর্জাতিক বিজনেস প্রোগ্রামের পরিচালক ড. মহসীন হাবিব।

দ্বিতীয় সংস্করন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj