আসামে আদিবাসী সংগঠনগুলোর ডাকে পালিত হচ্ছে বন্ধ

শনিবার, ১২ জানুয়ারি ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : আসামের ছয়টি জাতিগত গোষ্ঠীকে শিডিউল ট্রাইব (তফশিলি উপজাতি) হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বন্?ধ পালন করছে রাজ্যের আদিবাসী সংগঠনগুলো। শুক্রবার ভোর ৫টায় শুরু হওয়া এ বন্?ধ টানা ২৪ ঘণ্টা চলবে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস নাও-এর প্রতিবেদন থেকে এ কথা জানা গেছে। নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ২০১৬ নিয়ে আসামে কয়েক দিন ধরে ক্ষোভের আগুন জ্বলছে। ঠিক সেই সময় রাজ্যের ছয়টি জাতিগত গোষ্ঠীকে শিডিউল ট্রাইব-এর অন্তর্ভুক্ত করার বিল পাসের প্রস্তাব দেয় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। বুধবার বিলটি পার্লামেন্টে তোলা হয়। রাজ্যের যে ৬টি জনগোষ্ঠীকে সরকার তফশিলি উপজাতির মর্যাদা দিতে চাইছে সেগুলো হলো- আহোম, মটক, মরান, চুটিয়া, কোচ-রাজবংশী এবং আদিবাসী তথা চা সম্প্রদায়। এ প্রস্তাব রাজ্যের আদিবাসী জনগোষ্ঠীকে ক্ষুব্ধ করে তুলেছে। আদিবাসীদের সংগঠনগুলোর জোট দ্য কো-অর্ডিনেশন কমিটি অব দ্য ট্রাইব্যুনাল অর্গানাইজেশনের অভিযোগ, কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার রাজ্যের প্রকৃত আদিবাসীদের বঞ্চিত করে ওই ৬ জনগোষ্ঠীকে শিডিউল ট্রাইব মর্যাদা দেয়ার চেষ্টা করছে। এ বিলের আওতায় ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ভারতে প্রবেশকারী অমুসলিমদের (হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি, শিখ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ভুক্ত) নাগরিকত্বের বিধান রাখা হয়েছে।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj