তারকাদের অন্য পেশা

শনিবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৮

অভিনয়, গান, নাচের বাইরেও তারকাদের রয়েছে ভিন্ন একটি জীবন। যেখানে প্রয়োজনে অন্য পেশাকে আপন করে নিতে হয়। কেউ পৈতৃক ব্যবসাকে জিইয়ে রাখেন। কেউ কর্পোরেট জগতে পা রাখেন। খাবারের দোকান থেকে পোশাকের দোকান- তারকারা নতুন জীবিকা বেছে নিতে এরকম নানা বৈচিত্র্যের সন্ধানী। ‘মেলা’র অনুসন্ধানে বেরিয়ে এল শিল্পীদের অন্য পেশার খোঁজখবর। জানাচ্ছেন মাহফুজুর রহমান

রেস্টুরেন্ট

কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর গান গাওয়ার পাশাপাশি ব্যবসাটাও সমানতালে চালিয়ে নিচ্ছেন। অডিও ব্যবসার পাশাপাশি কুমিল্লায় ‘বাংলা রেস্তোরাঁ’ নামের একটি রেস্টুরেন্ট রয়েছে তার। যমুনা ফিউচার পার্কে রেড চিকেন নামে একটি ফাস্টফুডের দোকান রয়েছে চিত্রনায়ক শাকিব খানের। সঙ্গীতশিল্পী হাবিব ওয়াহিদ তার ধানমন্ডির পৈতৃক বাড়িতে দিয়েছেন ‘কাবাব অন সেভেন’ নামে একটি রেস্টুরেন্ট। পাশাপাশি একটি অনলাইন রেডিও নিয়েও ব্যবসা করছেন তিনি। টিভি অভিনেত্রী ঈশিতার বনানীতে ‘হোয়াই নট’ নামে একটি রেস্টুরেন্ট রয়েছে। বনানীতে ‘পান তো’ নামের একটি চায়নিজ ও জাপানিজ খাবারের রেস্টুরেন্ট গড়ে তুলেছেন অভিনেতা শাহরিয়ার নাজিম জয়। অভিনেতা অপূর্বর আছে গুলশানে ‘টামি টাইম’ নামের একটি রেস্টুরেন্ট। এ ছাড়া বনানীতেও অপূর্বর একটি কফিশপ রয়েছে। সঙ্গীতশিল্পী পারভেজ রাজধানীর কাওরান বাজারে ‘ক্যাফে ভর্তা-ভাত’ নামে একটি রেস্টুরেন্ট চালাচ্ছেন। চিত্রনায়ক রিয়াজ বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ‘ফুড ২৪*৭’ নামের একটি রেস্টুরেন্ট চালু করেছেন। এটিএন বাংলায় রান্নার অনুষ্ঠান ‘গোল্ডেন রেসিপি’ উপস্থাপনা করেন সঙ্গীতশিল্পী মিলন মাহমুদ। তখনই খাবারের ব্যবসার ব্যাপারে আগ্রহ তৈরি হয় এই সঙ্গীতশিল্পীর। উত্তরায় ৪ নম্বর সেক্টরে শুরু করেন ‘হ্যান্ডশেক’। সঙ্গীতশিল্পী এলিটা নবাব চাটগাঁ নামের একটি রেস্টুরেন্ট চালু করেছেন অনেকদিন আগেই। এতে এলিটার অংশীদার হিসেবে আছেন তার স্বামী নির্মাতা আশফাক নিপুণ। মাইলসের ভোকালিস্ট দুই ভাই হামিন ও শাফিন এক সময় গানের পাশাপাশি কম্পিউটার ও সফটওয়্যারের ব্যবসা করতেন। এখন সেই ব্যবসার সঙ্গে শাফিন আহমেদের রেস্টুরেন্ট ব্যবসা যুক্ত হয়েছে। দূরবীন ব্যান্ডের ভোকাল শহীদের পারিবারিক ব্যবসা। ওয়েল গ্রুপের মালিক তার পরিবার। ‘ওয়েল ফুড’ নামে রাজধানীসহ সারাদেশে ফাস্টফুড ও বেকারির ব্যবসা রয়েছে তার। চিত্রনায়ক ওমর সানী ও চিত্রনায়িকা মৌসুমী উত্তরায় সম্প্রতি প্রতিষ্ঠা করেছেন মেরি মন্টানা নামে একটি রেস্টুরেন্ট।

গার্মেন্ট

চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল মূলত ব্যবসায়ী। গার্মেন্ট শিল্প প্রতিষ্ঠান এজেআই গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর তিনি। গার্মেন্ট শিল্পে ব্যবসায়িক অবদানের জন্য একাধিকবার সিআইপিও নির্বাচিত হয়েছেন। তার স্ত্রী চিত্রনায়িকা বর্ষা এজেআই গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এবি ফ্যাশন লিমিটেডের পরিচালক। চিত্রনায়ক আলমগীর পারিবারিকভাবেই পোশাক শিল্প ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। ক্যারিয়ারের একটা সময়ে এসে চলচ্চিত্র থেকে অবসর নিয়ে ব্যবসার দিকেই মনোযোগ দিয়েছেন তিনি। রাজধানীর মিরপুর ও সাভারে একাধিক গার্মেন্ট রয়েছে তার। গত বছর ব্যবসা থেকে ছুুটি নিয়ে তিনি প্রযোজনায় ফিরে আসেন। চিত্রনায়ক ফারুকও ব্যস্ত রয়েছেন পোশাক শিল্পের ব্যবসা নিয়ে। অভিনয় থেকে ছুটি নিয়ে ব্যবসায় সময় দিচ্ছেন তিনি অনেক দিন ধরে। চিত্রনায়ক বাপ্পারাজ অভিনয়ে ব্যস্ত নেই। বায়িং হাউসের ব্যবসা নিয়েই বাপ্পারাজের সময় কাটে বেশি।

ফ্যাশন হাউস

সম্প্রতি চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ব্যবসায়ীর খাতায় নাম লিখিয়েছেন। গত ২৭ অক্টোবর নিজের জন্মদিনে মাহি তার ফ্যাশন হাউস ‘ভারা’ উদ্বোধন করেন। চিত্রনায়িকা সাহারা অভিনয় ছেড়েছেন দুই-তিন বছর হয়ে গেল। তিনিও একটি ফ্যাশন হাউস খুলেছেন। চিত্রনায়িকা ‘অমৃতা ফ্যাশন জোন’ নামে একটি পোশাকের দোকান গত ২৩ মার্চ আশুলিয়া টঙ্গীবাড়ীতে উদ্বোধন করেন। অভিনেত্রী সুজানা জাফর রাজধানীর বনানীর ১১ নম্বর সড়কে ‘সুজানাস ক্লোজেট’ নামে একটি ফ্যাশন হাউস দিয়েছেন। ধানমন্ডির সোবহানবাগে অবস্থিত ‘ওহো ফ্যাশন হাউস’-চালু করেছিলেন চিত্রনায়ক নিরব। তবে ফ্যাশন হাউসটি বন্ধ হয়ে গেলেও চিত্রনায়ক ইমনের সঙ্গে যৌথভাবে ‘থার্ড আই’ নামে একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বিয়ের পরই ব্যবসায় নামেন নওশীন-হিল্লোল দম্পতি। বানানীতে ‘সিগনেচার’ নামে একটি ফ্যাশন হাউস খুলেন তারা। কিছু দিন যেতে না যেতেই বন্ধ করে দেন সিগনেচার। বর্তমানে অনলাইন ভিডিও পোর্টাল ‘থার্ডবেল’ এর ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত আছেন দুজনেই। চিত্রনায়ক ওমর সানীর বসুন্ধরা সিটিতে পোশাকের দোকান রয়েছে। হাউসটির নাম লিভাইস। অভিনেতা ফারুক আহমেদ গ্রামীণ চেকের কাপড়ের একটি এক্সক্লুসিভ ফ্যাশন হাউস প্রতিষ্ঠা করেন মিরপুরে।

বিউটি পার্লার

ব্যবসায়ীদের তালিকায় নাম লিখিয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ। রূপচর্চাবিষয়ক ‘টিউলিপ নেইলস এন্ড স্পা’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান দিয়েছেন নিপুণ। নিঝুম রুবিনা নিকেতনের ‘বি’ ব্লুকের ‘রিফ্লেকশন’ নামে বিউটি পার্লারের উদ্বোধন করেন তিনি। চিত্রনায়িকা রেসিও সম্প্রতি বিউটি পার্লারের ব্যবসায় এসেছেন। পার্লারের নাম ‘রেসি হেয়ার এন্ড বিউটি সেলুন। চিত্রনায়িকা জলিও একই ব্যবসায় হাজির হয়েছেন। পার্লারের নাম ‘জলি গø্যামার জোন’। এই নভেম্বরেই পার্লারটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন তিনি।

বিজ্ঞাপনী সংস্থা

জনপ্রিয় অভিনেতা আফজাল হোসেন ‘মাত্রা’ নামে একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থার মালিক। এই ব্যবসার সঙ্গে তিনি দীর্ঘদিন ধরে জড়িত। মাঝেমধ্যে অভিনয় ও নির্মাণ করলেও পুরোটা সময় ব্যয় করেন ‘মাত্রার’ পেছনে। বিজ্ঞাপনী সংস্থা রয়েছে অভিনেতা মাহফুজ আহমেদেরও। এখানেই এখন তিনি বেশি সময় দিচ্ছেন। নাটকে সময় কমিয়ে দিয়েছেন। একইভাবে দীর্ঘদিন থেকে নিজের বিজ্ঞাপনী সংস্থা ও প্রডাকশন হাউস ধানসিঁড়ি নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন শমী কায়সার। সম্প্রতি এফবিসিসিআইয়ের নির্বাচনে পরিচালক পদে জয়ী হয়েছেন শমী।

কর্পোরেট

মডেল আদিল হোসেন নোবেল দীর্ঘদিন মডেলিংয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন কোম্পানিতে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করেছেন। বর্তমানে রবির সেলস এন্ড মার্কেটিং বিভাগে ‘হেড অব এন্টারপ্রাইজ বিজনেস’ হিসেবে কর্মরত নোবেল। সঙ্গীতশিল্পী নকীব খান নেসলে বাংলাদেশের কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করছেন বেশ কয়েক বছর ধরে। যদিও তার শুরুটা ফিলিপস কোম্পানিতে। সঙ্গীতশিল্পী সোমনুর মনির কোনাল ব্যবসায় প্রশাসনে পড়াশোনা করেছেন কুয়েতের আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন থেকে। ঢাকার ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগেও গ্র্যাজুয়েশন করেছেন তিনি। গান করার পাশাপাশি কোনাল চাকরি করেন বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল আইয়ে। প্রতিষ্ঠানটিতে ক্রিয়েটিভ প্রোগ্রামে এক্সিকিউটিভ হিসেবে কর্মরত কোনাল। অভিনেতা আব্দুল কাদের কয়েক দশক ধরে ‘বাটা’য় চাকরি করছেন। এই তথ্যাটি অনেক দর্শকেরই আর অজানা নয়।

বিনোদন হাইলাইটস'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj