খাসোগি হত্যাকাণ্ডে যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানাল কানাডা

শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

কাগজ ডেস্ক : খাসোগি হত্যাকাণ্ডের জড়িত থাকা অভিযোগ ১৭ সৌদি নাগরিকের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে কানাডা। ভবিষ্যতে তারাও এমন পদক্ষেপ নিতে পারে বলেও জানানো হয়। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়। যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা ও ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট খাসোগি গত ২ অক্টোবর ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে যাওয়ার পর নিখোঁজ হন। এ ঘটনার পর সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে তাকে হত্যার নির্দেশ দেয়ার অভিযোগ ওঠে বিশ^জুড়ে। খাসোগির নিখোঁজের ঘটনায় নানা বিভ্রান্তিমূলক বর্ণনা হাজিরের প্রায় ১৫ দিন পর খাসোগির হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি আরব। রিয়াদের তরফ থেকে দাবি করা হয় সৌদি আরবে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা ব্যর্থ হওয়ায় তাকে হত্যা করে কর্মকর্তারা।

গত বৃহস্পতিবার সৌদি পাবলিক প্রসিকিউটরের দপ্তর থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে প্রাণঘাতী ইনজেকশন প্রয়োগের পর ধস্তাধস্তির পর হত্যা করা হয় খাসোগিকে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে ১৭ জনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে যুক্তরাষ্ট্র।

কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, কানাডা এমন পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানায়। আমরাও এমনই পদক্ষেপের চিন্তা করছি। ফ্রিল্যান্ড বলেন, আন্তর্জাতিক মানবাধিকারের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকেই এমন পদক্ষেপ নিতে পারেন।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও বলেছেন, এই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের পরিণাম ভোগ করতে হবে। তারা সৌদি আরবের সঙ্গে বাণিজ্যের ব্যাপারটিও পুনর্বিবেচনা করছেন।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj