সবুজ ক্যাম্পাসে সারাদিন

বৃহস্পতিবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৮

সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ক্লাস। মাঝের কিছুটা সময় হালকা কিছু খাবার খেয়ে নেয়া। আর বেশিরভাগ ইউনিভার্সিটির ছাত্রছাত্রীদের সারাদিনের রুটিন কিন্তু প্রায় একই রকম। সারাদিন যেই ক্যাম্পাসে কাটাতে হয় সে ক্যাম্পাসটা একটু সবুজ হলে তো কথাই নেই।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় : সুন্দর লোকেশন, পরিবেশ, আয়তন কোনো কিছুই ঢাবি ক্যাম্পাসকে ছাড়িয়ে যেতে পারে না। এখানের খাবার দাবারও পাওয়া যায় অনেক ধরনের। লাইব্রেরি, রাজু ভাস্কর্য, অপরাজেয় বাংলা, মধুর ক্যান্টিন, টিএসসি সবখানেই রাতদিন চলে আড্ডার ধুম। প্রায় ৬০০ একরের সবুজ ক্যাম্পাসজুড়ে ৩০ হাজার ছাত্রছাত্রী পড়ালেখার সুযোগ পাচ্ছে। এখানে হাতের কাছেই কমদামের মধ্যে খাবার দাবারও জুটে যায়।

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস : ঢাকার মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট, মিরপুর-১২ তে অবস্থিত বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস। এটা প্রতিষ্ঠা লাভ করে ২০০৮ সালের ৫ জুন। এর বর্তমান শিক্ষার্থী প্রায় ৬ হাজার। মিরপুর ক্যান্টনমেন্টে বিশাল জায়গাজুড়ে মিলিটারিদের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের কার্যক্রম। সবুজ আর খোলামেলা পরিবেশে ইউনিভার্সিটির বিল্ডিংটি দুভাগে বিভক্ত। একটি একাডেমিক বিল্ডিং অন্যটিতে চলে প্রশাসনিক কার্যক্রম।

শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় : ঢাকার আরেক সবুজ ঘেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। এটা ঢাকার শেরে বাংলা নগরে প্রায় ৩৫.১৯ হেক্টর জমির ওপর ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। এর বর্তমান ছাত্র সংখ্যা প্রায় ২ হাজার ৫০০ জন। এর একাডেমি অনুষদ তিনটি। পুরো ক্যাম্পাসে সবুজের ছোঁয়া রয়েছে।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় : ৭৬.৮৫ একর জমির ওপর দাঁড়িয়ে আছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ক্যাম্পাস। হাজারো মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের পদচারণায় প্রতিদিন মুখরিত হয় এই ক্যাম্পাস। একাডেমিক বিল্ডিং ছাড়াও এখানে হল এবং ক্যাফে রয়েছে। সবুজ এই ক্যাম্পাসে ওয়াইফাই ব্যবস্থা রয়েছে। একবারে প্রফেশনাল লেভেলে খেলার মতো সুন্দর একটি ফুটবল মাঠও রয়েছে বুয়েটের।

:: ক্যাম্পাস ডেস্ক

ক্যাম্পাস'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj