আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যু : ক্রীড়াঙ্গনে শোকের ছায়া

শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮

খেলা প্রতিবেদক : এই রুপালি গিটার ফেলে, একদিন চলে যাব দূরে, বহুদূরে। হ্যাঁ অবশেষে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে কিংবদন্তি জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু গতকাল পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। সকালে শরীর খারাপ লাগলে আইয়ুব বাচ্চুর ব্যক্তিগত গাড়িচালক তাকে নিয়ে স্কয়ার হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা দেন। সোয়া নয়টার দিকে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। চিকিৎসকরা জানান, হৃৎ?রোগে আক্রান্ত হয়ে পথেই আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যু হয়েছে। তিনি বহুদিন ধরে হৃৎরোগে ভুগছিলেন। তার হার্টে কার্ডিয়োমাইপ্যাথি ছিল। ২০০৯ সালে তার হার্টে একটি স্টেন্ট পরানো হয়। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তিনি হৃৎ?রোগে আক্রান্ত হন বলে ধারণা করা হচ্ছে। সকাল সোয়া ৯টার দিকে তিনি মারা যান। ব্যান্ড জগতের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই শিল্পীর মৃত্যুতে পুরো দেশে শোকের ছায়া নেমে আসে। রাষ্ট্রপতি থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সবাই শোক প্রকাশ করছেন। এ ছাড়াও আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুর শোক ছুঁয়ে গেছে দেশের ক্রীড়াঙ্গনেও। শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, আইয়ুব বাচ্চু বাংলাদেশে রক মিউজিকের প্রবর্তক ছিলেন। তার এই আকস্মিক বিদায়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে আমি তার পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি। আমরা এই অসাধারণ সঙ্গীতশিল্পীর মৃত্যুতে সমগ্র দেশের মানুষের সঙ্গে শোক প্রকাশ করছি, যে সঙ্গীতের সীমানা অতিক্রম করে লক্ষ লক্ষ্য মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছেন।

এ ছাড়াও কাল সকাল ৯টায় মিরপুরে জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। অনুশীলনে থাকলেও, তাদের কানে চলে গেল খবরটা। একটা শোকাচ্ছন্ন পরিবেশ তৈরি হয় ক্রিকেটারদের মধ্যে। অনুশীলনের ফাঁকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম দিয়ে নিজেদের সেই শোকের বহিঃপ্রকাশ ঘটালেন ক্রিকেটাররা।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা খুবই মর্মাহত হয়েছেন বাচ্চুর মৃত্যুর খবর শুনে। নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শোক প্রকাশ করতে গিয়ে পোস্ট দেন ফিলিং হার্টব্রোকেন। আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় একটি গানের কয়েক চরণ লিখে শোক প্রকাশ করেন তিনি। লিখেছেন, সবাইকে একা করে, চলে যাবো অন্ধ ঘরে, এই শহর গাড়ি-বাড়ি কিছুই রবে না। শোক প্রকাশ করেছে ক্রিকেট দলের সিনিয়র ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। তিনিও অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে আইয়ুব বাচ্চুর একটি ছবি দিয়ে লেখেন, কী এক দুঃসংবাদ শুনে দিনটা শুরু করতে হলো আমাদের! ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তার আত্মা শান্তি পাক। আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে তোলা একটি ছবি নিজের ফেসবুক পেজে প্রকাশ করেন পেসার রুবেল হোসেন। সেখানে তিনি লিখেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন। সত্যি আমি মানতে পারছি না। ছোটবেলা থেকেই জেমস ভাই, বাচ্চু ভাই এদের গান শুনি। আমি বাচ্চু ভাইয়ের বড় একজন ফ্যান। সেদিনও টিভিতে তার কনসার্ট দেখছিলাম। আল্লাহ! এটা কি হয়ে গেল! আসলে সবাইকে চলে যেতে হবে একদিন। এটাই বাস্তবতা তার জন্য সবাই দোয়া করবেন…। আল্লাহ যেন প্রিয় শিল্পীকে বেহেশত নসিব করেন। আমিন।

পেসার তাসকিন আহমেদ আইয়ুব বাচ্চুর একটি ছবি প্রকাশ করেছেন, যেখানে দেখা যাচ্ছে চোখ বন্ধ করা বাচ্চুর কপালের ওপর ক্যাপটা টেনে দেয়া। সেখানে তিনি লিখেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন। এরপরই জুড়ে দেন আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় ‘এই রুপালি গিটার’ গানের কয়েক লাইন। উইল মিস ইউ, রেস্ট ইন পিচ লিজেন্ড।

জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক বিপ্লব ভট্টাচার্য ফেসবুকে লিখেছেন, এই রুপালি গিটার ফেলে আপনি আমাদের ছেড়ে এতো তাড়াতাড়ি চলে যাবেন না ফেরার দেশে… ভাবতে কষ্ট অনুভব করছি।

‘লিজেন্ড… ভালাবাসা আপনার প্রতি’, এভাবেই নিজের অনুভূতি শেয়ার করেছেন এই ফুটবলার।

এ ছাড়াও জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক মামুনুর রহমান চয়ন ফেসবুকে শোক প্রকাশ করে লিখেছেন, আপনার গানগুলো সারা জীবন বেঁচে থাকবে আমাদের মাঝে।

পৃথিবীর মায়া ছাড়লেও আইয়ুব বাচ্চু ভক্তদের মাঝে সঙ্গীত দিয়ে আজীবন বেঁচে থাকবেন।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj