শিক্ষামন্ত্রী : পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে অভিন্ন নীতিমালা হচ্ছে

বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

কাগজ প্রতিবেদক : পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক নিয়োগে স্বচ্ছতা বাড়ানো ও যোগ্যতম প্রার্থীদের নিয়োগ নিশ্চিত করতে অভিন্ন নীতিমালা প্রণয়ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। মন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট সবার মতামত নেয়া হয়েছে। এর ভিত্তিতেই চূড়ান্ত নীতিমালা প্রণয়নের কার্যক্রম চলছে। গতকাল বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সম্মেলন কক্ষে নীতিমালা প্রণয়ন সংক্রান্ত এক কর্মশালায় এ কথা বলেন মন্ত্রী।

পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ, পদোন্নতির বিষয়ে ইউজিসির প্রণয়ন করা অভিন্ন নীতিমালার বিষয়ে মতামত নিতেই উপাচার্যসহ অংশীজনদের নিয়ে ওই কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আলোচনার মাধ্যমে সবার মতামত যাচাই ও তুলনা করা সম্ভব হয়েছে। উপাচার্যরা অভিজ্ঞতার আলোকে মতামত দিয়েছেন। এর ভিত্তিতেই কমিটি নীতিমালা চূড়ান্ত করবে। এটি বাস্তবায়িত হলে শিক্ষক নিয়োগে স্বচ্ছতা যেমন বাড়বে তেমনি যোগ্যতমরাই বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাবেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল্লাহ আল হাসান চৌধুরীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি এএসএম মাকসুদ কামাল এবং ইউজিসির সদস্য ড. মো. আখতার হোসেন। উপাচার্যরা নীতিমালা প্রণয়ন বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে মতামত তুলে ধরেন।

পরে মন্ত্রী জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত তিন শতাধিক কৃতী শিক্ষার্থীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। মাসিক ‘বিশ^বিদ্যালয় পরিক্রমা’ পত্রিকার আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ^মানের শিক্ষা অর্জনের প্রতিযোগিতায় টিকতে শিক্ষার্থীদের জ্ঞান-বিজ্ঞানে যোগ্য হয়ে ওঠার পাশাপাশি ভালো মানুষও হতে হবে।

মাসিক বিশ^বিদ্যালয় পরিক্রমার প্রধান সম্পাদক হারুন-অর-রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন বিএফইউজের সভাপতি মোল্লা জালাল, প্রাইম ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান মীর শাহাবুদ্দীন প্রমুখ।

দ্বিতীয় সংস্করন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj