প্রকৌশলী হতে চাইলে

বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দেশের মেধাবী অথচ দরিদ্র শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রযুক্তিগত শিক্ষাকে এগিয়ে নেয়ার জন্য ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সটি চালু করে। এক যুগ ধরে এ কোর্সটি অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে পরিচালিত হয়ে আসছে।

বর্তমানে এই কোর্সে পড়াশোনা করছেন প্রায় ৯০০ দেশি-বিদেশি শিক্ষার্থী। এ বিভাগ থেকে পাস করা ইঞ্জিনিয়াররা বাংলাদেশ তথা বিদেশেও টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরে নিয়োজিত রয়েছেন। শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সটিকে দুটি শাখায় বিভক্ত করা হয়েছে।

(১) বিএসসি (অনার্স) ইন ইইটিই (দিবা) শাখা এবং (২) বিএসসি (অনার্স) ইন ইইটিই (সান্ধ্যকালীন) শাখা। এ কোর্সটির অধীন রয়েছে অত্যাধুনিক ১৪টি ল্যাবরেটরি। উল্লেখযোগ্য হলো- মেশিন ল্যাব, কন্ট্রোল ল্যাব, সিমুলেশন ল্যাব, মাইক্রো প্রসেসর ল্যাব, টেলিকমিউনিকেশন ল্যাব এবং সার্কিট ল্যাব। বুয়েট ও ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের খ্যাতিমান অধ্যাপকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এই ল্যাবরেটরিগুলো স্থাপন ও পরিচালনা করা হচ্ছে।

এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইলেকট্রিক্যাল ডিজাইন, পিএলসি বেজড ইন্ডাস্ট্রিয়াল অটোশেন এবং রোথটিকসের ওপর প্রোফেশনাল শর্ট সার্টিফিকেট কোর্স চালু করা হয়েছে। ইউনিভার্সিটিতে রয়েছে তিনটি সমৃদ্ধ লাইব্রেরি। এখানে রয়েছে দেশি-বিদেশি পর্যাপ্ত বই ও জার্নাল। ইউনিভার্সিটি সম্পূর্ণ ওয়াইফাইয়ের আওতাভুক্ত। পুরো ক্যাম্পাস ওয়াইফাই হওয়ায় এবং ইন্টারনেট সুবিধা থাকায় শিক্ষার্থীরা গবেষণা কাজে বিশেষ সুবিধা ভোগ করে থাকেন।

দরিদ্র, মেধাবী ও মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানদের বৃত্তিদান করা হয়। এ ছাড়া বিশ^বিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বরধারীদের বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ রয়েছে। বর্তমানে ২৫৩ শিক্ষার্থী সম্পূর্ণ বিনা বেতনে অধ্যয়নরত।

যোগাযোগ : ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস, সাতারকুল, বাড্ডা, ঢাকা। গ্রিন রোড, ঢাকা। বাড়ি-০৪, সড়ক-০১, ব্লুক-এফ, বনানী, ঢাকা। ওয়েবসাইট : িি.িফরঁ.ধপ

ক্যাম্পাস'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj