বিশ্ব সংবাদ

বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন : গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করছে মিয়ানমার

কাগজ ডেস্ক : স্বাধীন সাংবাদিকতার পথ রুদ্ধ করতে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সরকার এক জোট হয়ে ‘রাজনৈতিক আক্রমণ’ শুরু করেছে। সেই লক্ষ্য থেকেই অস্পষ্ট আইনে বহু সাংবাদিককে গ্রেপ্তার বা বিচারের মুখোমুখি করা হচ্ছে বলে মনে করছে জাতিসংঘ।

রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে সাজা দেয়ার সাম্প্রতিক ঘটনাসহ পাঁচটি ঘটনা পর্যালোচনা করে গত মঙ্গলবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন। মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিপীড়নের তথ্য সংগ্রহের সময় গ্রেপ্তার রয়টার্সের সাংবাদিক ওয়া লোন (৩২) ও কিয়াও সো ওকে (২৮) গত ৩ সেপ্টেম্বর ঔপনিবেশিক আমলের রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে ৭ বছরের কারাদণ্ড দেয় ইয়াঙ্গুনের একটি আদালত।

রাখাইনের সেনা অভিযানের সময় ইনদিন গ্রামে ১০ রোহিঙ্গাকে হত্যা করে লাশ পুঁতে ফেলার একটি ঘটনা বিশে^র সামনে তুলে ধরেছিলেন ওই দুই সাংবাদিক। ওই ঘটনাকে মিয়ানমারে সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে বিচারিক হয়রানির ‘ভয়ঙ্কর এবং হাই প্রোফাইল উদাহরণ’ হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে মানবাধিকার কমিশনের প্রতিবেদনে।

মানবাধিকার কমিশনের মুখপাত্র রাভিনা শ্যামদাসানি গত মঙ্গলবার জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, মিয়ানমারে আইন ও আদালতকে ব্যবহার করে সরকার ও সেনাবাহিনী সংবাদপত্রের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক আক্রমণ চালাচ্ছে। মিয়ানমারে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইনের পাশাপাশি টেলিযোগাযোগ এবং আমদানি-রপ্তানিবিষয়ক আইনও সাংবাদিকদের হয়রানির জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

মিসরে ৪ হাজার বছরের পুরনো সমাধি উন্মুক্ত

কাগজ ডেস্ক : মিসরের বিখ্যাত পিরামিড চত্বর গিজার কাছে উন্মুক্ত করা হয়েছে চার হাজার বছরের পুরনো একটি সমাধি। এটি প্রাচীন মিসরীয় রাজতন্ত্রের শেষ রাজবংশীয় আমলের। এ ধরনের কোনো সমাধি এবারই প্রথম ঘুরে দেখার সুযোগ পাচ্ছে বিভিন্ন দেশের দর্শনার্থীরা। খবর সানডে এক্সপ্রেসের।

গিজার খুব কাছে সাকারা অঞ্চলে রয়েছে ভিজিয়ার মেহুর এই সমাধি। তিনি ছিলেন রাজা পেপির উচ্চপর্যায়ের উপদেষ্টা। ১৯৪০ সালে এটি আবিষ্কার করেন মিসরীয় পুরাতাত্তি¡ক জাকি সাদ। মেহুর পুত্র মারানরা আর তার নাতি হাতিব খাঁর উপকরণও আছে সমাধিতে। এর দেয়ালে উল্লেখ রয়েছে, রাজা পেপির শাসনামলে ৪৮টি খেতাব পেয়েছিলেন মেহু।

মিসরীয় পুরাতত্ত্ব সুপ্রিম কাউন্সিলের মহাসচিব মোস্তফা ওয়াজিরি বলেন, সাকারা গোরস্তানের সবচেয়ে সুন্দর সমাধিগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। কারণ এর রং এখনো বিশুদ্ধ রয়েছে।

স্ত্রীর মৃত্যুতে প্যারোলে মুক্তি পেলেন নওয়াজ

কাগজ ডেস্ক : স্ত্রী কুলসুম নওয়াজের জানাজায় অংশ নিতে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা জেল থেকে প্যারোলে মুক্তি পেয়েছেন পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। পাশাপাশি নওয়াজের মেয়ে মরিয়ম ও জামাতা ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ সফদারকেও প্যারোলে মুক্তি দেয়া হয়েছে। ১২ ঘণ্টার জন্য তাদের প্যারোল দেয়া হলেও নওয়াজ-পতœী কুলসুম নওয়াজকে সমাহিত করা পর্যন্ত এ সময়সীমা বাড়ানো হতে পারে। খবর ডনের।

গত বছরের আগস্টে কুলসুম নওয়াজের গলায় ক্যান্সার ধরা পড়ে। এর জন্য লন্ডনে চিকিৎসারত অবস্থাতেই গত ১৫ জুন হৃদরোগে আক্রান্ত হন কুলসুম। তাকে লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তখন থেকেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj