পাথরঘাটা-কাকচিড়া সড়ক মরণফাঁদ, দুর্ভোগ চরমে

বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অমল তালুকদার, পাথরঘাটা (বরগুনা) থেকে : উপজেলার ঢাকা-পাথরঘাটা মহাসড়কের কাকচিড়া সড়ক মেরামতের ৬ মাসের মাথায় ফের মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। পাথরঘাটা পৌরসভা থেকে বটতলা পর্যন্ত প্রায় ৫ কিলোমিটার সড়কের বিভিন্ন স্থানে পিচ-ঢালাই, ইট-সুরকি উঠে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। আর এই খানাখন্দে পড়ে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে মালবাহী ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহন। যাত্রীবাহী বাস, টেম্পো, টমটম, রিকশা ও মালবাহী গাড়ি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, মূল সড়কের কাজ মাঝে মাঝে করে আবার কিছু কিছু অংশ রেখে দিয়েছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। ভারি বর্ষণে ওই রেখে দেয়া অংশে সৃষ্টি হওয়া খানাখন্দে পুরো সড়কটিই মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে বেড়েছে দুর্ঘটনা। ভাঙা রাস্তায় গাড়ি আটকে থাকে প্রতিনিয়ত। এক গাড়ি অরেক গাড়িকে সাইড দিতে গিয়ে বিভিন্ন সময় খাদে পড়ে দুর্ঘটনা ঘটছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, প্রায় ১৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে রাস্তাটির প্রায় ৫ কিলোমিটার যেন মরণফাঁদ। বিভিন্ন জায়গায় বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। মাহিন্দ্রাচালক মামুন বলেন, সড়ক সংস্কারের ৬ মাস যেতে না যেতেই বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। কালমেঘা ইউনিয়নের জালালাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, রাস্তা ভাঙাচোরার কারণে স্কুলে আসা-যাওয়া করতে অসুবিধা হয়। রিকশা ও অটোরিকশার ভাড়া দ্বিগুণ হয়ে গেছে। এ ছাড়া সামান্য বৃষ্টি হলে এই সড়কে কাদা জমে যায়। এ রাস্তায় যাতায়াতকারী লিটন, রাজন, আরিফ বলেন, সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে ভাঙাচোরা অবস্থায় পড়ে আছে। কিন্তু সংস্কারের কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি। যে কারণে ঝুঁকি নিয়ে সড়কটিতে চলাচল করতে হয়। সড়ক সংস্কারের ৬ মাসের মাথায় এমন অবস্থা হয়েছে, এখন রাস্তায় ধানের বীজ রোপণ করা যায়। দীর্ঘদিন ধরে এই সড়কের বেহাল দশা।

এই সড়কে যাত্রীবাহী টেম্পো, টমটম ও রিকশা উল্টে খাদে পড়ে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। এ রুটে নিয়মিত চলাচল করেন পাথরঘাটার স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রীসহ হাজারো মানুষ। ফলে জনমনে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে সড়ক ও জনপদ বিভাগের বরগুনা জেলার উপসহকারী প্রকৌশলী অরুন কুমার বিশ^াস বলেন, পাথরঘাটা থেকে আমুয়া পর্যন্ত এ সড়কের টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন। শিগগিরই এ সড়কের কাজ শুরু হবে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj