শ্রীনগরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে খাদ্যদ্রব্য

বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি : নিরাপদ খাদ্য আইন ও খাদ্য বিধিমালার তোয়াক্কা না করেই শ্রীনগরে অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে তৈরি করা হচ্ছে নি¤œমানের খাদ্যসামগ্রী। উপজেলার ভাগ্যকুল ইউনিয়নের কামারগাঁও এলাকায় স্থাপিত বিক্রমপুর ফুড প্রোডাক্টস নামের একটি কারখানায় এ সব খাদ্যসামগ্রী তৈরি করা হচ্ছে। আকর্ষণীয় মোড়কের মানহীন এসব খাবার খেয়ে শিশুরা প্রায়ই নানারকম স্বাস্থ্য সমস্যায় পড়ছে বলে জানা যায়।

সরেজমিন দেখা যায়, শ্রীনগর-ভাগ্যকুল-দোহার সড়কের কামারগাঁও থেকে কয়েকশ গজ উত্তরে ঘোষ বাড়ির সাবেক গরুর খামারের টিনশেড ভবনটিতে গড়ে উঠেছে বিক্রমপুর ফুড প্রোডাক্টস নামের খাদ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটি। এর ভেতরে প্রবেশ করে দেখা যায় অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন অবস্থায় তৈরি করা হচ্ছে শিশুদের খাদ্যসামগ্রী।

কারখানার অপরিচ্ছন্ন মেঝেতে যত্রতত্র ফেলে রাখা হয়েছে খাবার তৈরির বিভিন্ন উপকরণ। মানা হচ্ছে না নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ ও খাদ্য বিধিমালা ১৯৬৭। ব্যবহার করা হচ্ছে পোড়া তেল, অনিরাপদ পানি। খাদ্যসামগ্রী সংরক্ষণের জন্য নেই তাপনিয়ন্ত্রিত কোনো স্টোর রুম। উৎপাদন কাজে নিয়োজিত কর্মচারীরা কাজ করছেন অপরিচ্ছন্ন পোশাকে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ কারখানায় তৈরি করা যাবতীয় মানহীন পণ্য ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় পাইকারি বাজারগুলোতে বিক্রি করা হচ্ছে। অধিক লাভের আশায় দোকানিরা কিনে নিচ্ছেন এ সব মানহীন খাদ্যসামগ্রী।

মুঠো ফোনে এ প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার গোলাম রাব্বানীর কাছে খাদ্যসামগ্রী তৈরিতে অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে লাইনটি কেটে দেন।

প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার স্বপন ঘোষকে মুঠো ফোনে জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হন।

উল্লেখ্য, বিক্রমপুর ফুড প্রোডাক্টসের উৎপাদন লাইসেন্স, প্রিমিসেস লাইসেন্স, বিএসটিআই সনদ, পরিবেশ ছাড়পত্র, ফায়ার সনদ ও কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সনদ, হালনাগাদ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন সচেতন মহল। প্রতিষ্ঠানটি নানা রকম পটেটো চিপস, রিং চিপস, ঝাল চানাচুর, ডাল ভাজা, কুড়মুড়ে তৈরি করে।

এ ব্যাপারে শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না । শিশুদের খাদ্যসামগ্রী তৈরিতে কোনোপ্রকার অনিয়ম থাকলে কারখানাটির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj