ঠাণ্ডা মাথার কোচ জ্লাতকো ড্যালিচ

শুক্রবার, ১৩ জুলাই ২০১৮

খেলা ডেস্ক : রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর আগে খুব কম মানুষই হয়ত ভেবেছে ক্রোয়েশিয়া ফাইনালে যাবে। অনেক ফুটবলবোদ্ধা ক্রোয়েশিয়াকে শক্তিশালী দল হিসেবে উল্লেখ করেছে ঠিকই; তবে ফেভারিট দলের তালিকায় দলটিকে কেউই রাখেনি। কিন্তু এখন এসব অতীত। একের পর এক চমক দেখিয়ে ক্রোয়েশিয়া এখন রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে। আর মাঠে লুকা মড্রিচ, ইভান রাকিটিচ, মারিও মানজুকিচ, আন্তে রেভিচ, ডেনিয়েল সুবাসিচদের দুর্দান্ত পারফরমেন্সের পেছনে যার অবদান সবচেয়ে বেশি তিনি হলেন বর্তমান ক্রোয়েশিয়া দলের কোচ জøাতকো ড্যালিচ। ফুটবলপ্রেমীদের কাছে ইতোমধ্যে তিনি ঠাণ্ডা মাথার কোচ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন।

অবশ্য জøাতকো ড্যালিচকে ঠাণ্ডা মাথার কোচ হিসেবে অভিহিত করার পেছনে যথেষ্ট কারণও রয়েছে। বিশ^কাপে শিষ্যরা যখন মাঠের লড়াইয়ে ব্যস্ত থাকে তখন অধিকাংশ কোচকে দেখা যায় অস্থির হয়ে ডাগআউটে ছুটাছুটি করতে। তবে এদিক থেকে ব্যতিক্রম ক্রোয়েশিয়ার কোচ জøাতকো ড্যালিচ। কোন ধরনের অস্থিরতা দেখা যায় না তার মধ্যে। মড্রিচদের কোচকে কখনো দেখা যায় ডাগআউটে নিজের চেয়ানে শান্তভাবে বসে আছেন, অথবা দাঁড়িয়ে মনোযোগ দিয়ে দেখছেন শিষ্যদের পারফরমেন্স। ম্যাচের উত্তেজনাকর মুহূর্তেও কোনো ধরনের অস্থিরতা দেখা যায় না তার মধ্যে। ফুটবলপ্রেমীদের নিশ্চয়ই জানা যে, রাশিয়া বিশ^কাপের দ্বিতীয় রাউন্ড ও শেষ আটের ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে সম্মুখীন হতে হয়েছে টাইব্রেকার নামক কঠিন পরীক্ষার। যেখান শেষ ষোলোর লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল ডেনমার্ক ও শেষ আটের লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল স্বাগতিক রাশিয়া। এমন রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচগুলোতেও মাথা ঠাণ্ডা রেখে শিষ্যদের পরামর্শ দিয়েছেন ড্যালিচ। তবে জøাতকো ড্যালিচের মাথা ঠাণ্ডা রাখার বিষয়টি সবচেয়ে বেশি নজরে এসেছে সেমিফাইনালের ম্যাচটিতে। প্রথমবারের মতো বিশ^কাপের ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে বুধবার রাতে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিল ক্রোয়েশিয়া। এদিন ম্যাচের প্রথম মিনিটেই পিছিয়ে পড়ে ড্যালিচের শিষ্যরা। তবে তখনো মাথা ঠাণ্ডা রেখেছেন ক্রোয়েশিয়ার কোচ। কিছুক্ষণ পরপরই শিষ্যদের পরার্মর্শ দিয়েছেন তিনি। সে দৃশ্য নিশ্চয়ই নজর এড়ায়নি দর্শকদের। এছাড়া ম্যাচটির নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলের সমতায় শেষ হওয়ার পর অতিরিক্ত সময়ে গড়ানোর পরও ঠাণ্ডা মাথায় লুকা মড্রিচদের পরামর্শ দিয়ে গেছেন তিনি। ম্যাচ শেষে কোচের এই গুণের কথা স্বীকার করেছেন ক্রোয়েশিয়ার ফুটবলাররাও। তাদের মতে, ড্যালিচই তাদের মূল অনুপ্রেরণা। কঠিন পরিস্থিতিতেও কীভাবে মাথা ঠাণ্ডা রাখতে হয় সেটি তারা শিখেছেন ড্যালিচকে দেখে।

জøাতকো ড্যালিচের জন্ম ১৯৬৬ সালের ২৬ অক্টোবর বসনিয়া এন্ড হার্জেগোভিনাতে। ২০১৭ সালের ৭ অক্টোবর ক্রোয়েশিয়া জাতীয় দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেন তিনি। তার অধীনে দারুণ সফল মড্রিচরা। এখন পর্যন্ত ড্যালিচের অধীনে খেলা ১৩ ম্যাচের ৮টিতেই জয় পেয়েছে ক্রোয়েশিয়া। তবে ড্যালিচের সফলতাটা সবচেয়ে বেশি নজরে আসছে বিশ^কাপের কারণে। রাশিয়া বিশ^কাপে এখন পর্যন্ত ৬টি ম্যাচ খেলে সবকটিতেই জয় পেয়েছে ক্রোয়াটরা। এছাড়া ড্যালিচের অধীনে খেলা ম্যাচগুলোর মধ্যে এখন পর্যন্ত মাত্র ২টি ম্যাচে হেরেছে লুকা মড্রিচরা। ক্রোয়েশিয়া জাতীয় দলের আগে বেশ কয়েকটি ক্লাবের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। খেলোয়াড়ি জীবনে ড্যালিচ ছিলেন একজন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার।

আর মাত্র ১টি ম্যাচ জিতলেই প্রথমবারের মতো বিশ^কাপ শিরোপা জিতবে ক্রোয়েশিয়া। ঠাণ্ডা মাথার কোচ ড্যালিচ ক্রোয়েশিয়াকে স্বপ্নের বিশ^কাপ শিরোপা জেতাতে পারবেন বলেই বিশ^াস সমর্থকদের।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj