এক ম্যাচ বেশি খেলল ক্রোয়েশিয়া

শুক্রবার, ১৩ জুলাই ২০১৮

খেলা ডেস্ক : রাশিয়া বিশ্বকাপে একের পর এক ম্যাচ জিতে ফাইনালে উঠে এসেছে ফ্রান্স এবং ক্রোয়েশিয়া। তবে ফরাসিদের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলেছে লুকা মড্রিচরা! আসলে ম্যাচ হিসেবে নয়, সময় হিসেব করতে গেলে একটি ম্যাচের সমপরিমাণ সময় বেশি খেলে ফাইনালে উঠে আসতে হয়েছে ক্রোয়েশিয়াকে। নকআউট পর্বের তিন ম্যাচের প্রত্যেকটিতে অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে করে এক ম্যাচের সমপরিমাণ ৯০ মিনিট বেশি খেলেছে জøাতকো দালিচের শিষ্যরা।

১৯৯৮ সালে প্রথমবারের মতো ফিফা বিশ্বকাপে খেলতে এসেই বিশ্বমঞ্চে নিজেদের চিনিয়ে নিয়েছিল ক্রোয়েশিয়া। সেবার সেমিফাইনাল খেলে দলটি। তবে স্বাগতিক ফ্রান্সের বিপক্ষে হেরে শিরোপা জেতা সম্ভব হয়নি। এরপর তিনটি বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে প্রতিবারই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় ইউরোপের এ দলটি। কিন্তু ফিফা বিশ্বকাপের একুশতম আসরে সবাইকে অবাক করে ইতোমধ্যেই ফাইনালে নিজেদের নাম লিখিয়েছেন লুকা মড্রিচরা। চলতি বিশ্বকাপে ছয়টি ম্যাচ খেলেছে ফরাসিরা। কিন্তু সেখানেই ক্রোয়েটরা খেলেছে একটি বেশি ম্যাচ! আসলে ম্যাচ নয়, একটি ম্যাচের সমপরিমাণ ৯০ মিনিট বেশি খেলেছে দ্যা বেøজার্সরা। গ্রুপ পর্বে মেসির আর্জেন্টিনা এবং নাইজেরিয়াকে পেছনে ফেলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় জøাতকো দালিচের শিষ্যরা। দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলায় ডেনমার্কের বিপক্ষে নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে সমতায় ম্যাচটি শেষ হলে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট খেলতে হয়। তাতেও ফলাফল না আসলে টাইব্রেকারে ম্যাচ নিষ্পত্তি হয়। কোয়ার্টার ফাইনালেও স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট খেলতে হয়েছে ক্রোয়েটদের। এ ম্যাচেও টাইব্রেকারে জয় নিশ্চিত করে মড্রিচ-রাকিটিচরা। ফাইনালে ওঠার লড়ায়ে গত বুধবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামে ক্রোয়েশিয়া। কাকতালীয়ভাবে এ দিন নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলের সমতায় খেলা শেষ করে দুদল। এরপর অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলায় মারিও মানজুকিচের গোলে জয় নিয়ে ফাইনালে উঠেছে ইউরোপ অঞ্চলের দলটি। মূলত এভাবেই ফাইনালে ওঠা ফ্রান্সের চেয়ে এক ম্যাচের সমপরিমাণ সময় বেশি খেলেছে ফুটবল বিশ্বের উদীয়মান শক্তিশালী দলটি।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj