সৌন্দর্য হারাচ্ছে রাশিয়া বিশ^কাপ

মঙ্গলবার, ৩ জুলাই ২০১৮

মাত্র দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা চলছে। আজ রাতে অনুষ্ঠিত হবে বাকি দুটো ম্যাচ। কিন্তু এর ভেতরই একে একে বাদ পড়ছে ফুটবল বিশে^র বড় বড় দলগুলো। আর রাশিয়া বিশ^কাপ তার সৌন্দর্য হারাচ্ছে। শুরুটা হয়েছে জার্মানির হারের মাধ্যমে। গ্রুপ পর্ব থেকেই রাশিয়া বিশ^কাপের মিশন শেষ হয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জার্মানির। এরপর দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম ম্যাচেই ফ্রান্সের বিপক্ষে হেরেছে মেসির আর্জেন্টিনা। এরপর ফুটবল মঞ্চ থেকে বিদায় নিয়েছে পর্তুগাল এবং জার্মানিও। ফুটবলের পরাশক্তিগুলোর এমন হারে রাশিয়া বিশ^কাপ তার সৌন্দর্য হারাচ্ছে বলে মনে করছেন ফুটবল বিশ্লেষকরা।

দারুণ জমে উঠেছে ফিফা বিশ^কাপের ২১তম আসরের খেলা। ভালো খেলেও ছোট দলগুলোর বিপক্ষে জিততে পারছে না ফুটবল বিশে^র জনপ্রিয় দলগুলো। অঘটনের শুরু হয় জার্মানি-মেক্সিকোর মধ্যকার গ্রুপ পর্বের ম্যাচের মাধ্যমে। এ দিন হুয়ান কার্লোস ওসেরিওর শিষ্যদের বিপক্ষে ১-০ গোলের ব্যবধানে হারে চারবারের বিশ^চ্যাম্পিয়নরা। দ্বিতীয় ম্যাচে সুইডেনের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় নিয়ে আশা বাঁচিয়ে রাখলেও দক্ষিণ কোরিয়া রুখে দেয় জোয়াকিম লোর শিষ্যদের। দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে হলে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে জয় ছাড়া কোনো উপায় ছিল না জার্মানির। কিন্তু জয় তো দূরের কথা উল্টো ২-০ গোলে হেরে গ্রুপ পর্বেই দ্বিতীয় অঘটনের শিকার হয় ম্যানুয়াল নয়ারের বাহিনী। আর সেই সঙ্গে ফ্রান্স, ইতালি এবং স্পেনের পর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে গ্রুপ পর্ব থেকেই বাদ পড়ে জার্মানি। জার্মানির সমর্থকদের হতাশা কাটতে না কাটতেই ফুটবল বিশে^ আবারো বিস্ময়ের সৃষ্টি হয়। বিশ^কাপের ইতিহাসে যে ফ্রান্সের কাছে এর আগে কোনো ম্যাচে হারেনি আর্জেন্টিনা, সেই দলই দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম ম্যাচে ৪-৩ গোলে হেরেছে। তবে আর্জেন্টিনার হারার ফলে ততটা অবাক হয়নি ফুটবল বিশ^। কেননা শুরু থেকেই ছন্নছাড়া ফুটবল খেলছিল মেসির দল। গ্রুপ পর্বে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে কোনো মতো জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছিল দুবারের বিশ^চ্যাম্পিয়নর। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে ছাড় দেয়নি ফরাসিরা। মেসিদের বিদায়ের পর সমর্থকদের চোখের জল না শুকাতেই রাশিয়া মিশন শেষ হয় রোনালদোর পর্তুগালের। দ্বিতীয় রাউন্ডের দ্বিতীয় ম্যাচে এ দিন উরুগুয়ের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যরা। পিএসজি স্ট্রাইকার কাভানির জোড়া গোলে ২-১ ব্যবধানে জিতে কোয়র্টার ফাইনালে উঠে ফিফা বিশ^কাপের প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়নরা। পর্তুগালের হয়ে একমাত্র গোলটি করেছিলেন পেপে। আর্জেন্টিনা আর পর্তুগালের হারে বিশ^বাসী যতটা না অবাক হয়েছে তার চেয়ে বেশি অবাক হয়েছে স্পেনের হারে। রাশিয়ার লুজনিয়াকি ফুটবল স্টেডিয়ামে সহজ প্রতিপক্ষই পেয়েছিল ফার্নান্দো হিয়েরোর শিষ্যরা। কিন্তু ওই স্বাগতিক রাশিয়াকেই পরাস্ত করতে পারেনি ২০১০ সালের বিশ^চ্যাম্পিয়নরা। নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলে শেষ হলে অতিরিক্ত সময়ে বল মাঠে গড়ায়। কিন্তু তাতেও কোনো ফায়দা হয়নি। শেষ পর্যন্ত খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। বিশে^র অন্যতম সেরা গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া স্পেন দলে থাকলেও কিছু করতে পারেননি এ ম্যানইউ তারকা। উল্টো চমক দেখিয়েছেন রুশ গোলরক্ষক ইগোর আকিনফেভ। কেকো এবং হিয়েগো আসপাসের শট আটকে দিয়ে বিশ^কাপের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে স্তানি¯øাভ চেরিশেভের শিষ্যরা।

:: মকুল মুর্শেদ

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj