ছুটিতে মন যেখানে হারাতে চায় : বিনোদন প্রতিবেদক

শুক্রবার, ১৫ জুন ২০১৮

ঈদ উদযাপনের শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততা নিয়ে সময় কাটাচ্ছেন শোবিজ তারকা। শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা আর বাড়ি ফেরার ব্যস্ততার খবর জানতে ভোরের কাগজের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয়েছিল বেশ কয়েকজন শোবিজ তারকার সঙ্গে। তারা জানিয়েছেন ঈদ নিয়ে তাদের ভাবনার কথা।

মুশফিকুর রহমান গুলজার

ঈদে আসলে ঘুরে বেড়ানোর তেমন সুযোগ পাই না। বরাবরের মতো এই ঈদেও তাই হবে। এবারের ঈদে ঢাকায় থাকব এবং আমাদের যে ছবিগুলো রিলিজ হচ্ছে তার খোঁজ-খবর রাখব। আর সুযোগ পেলেই পুরো ঢাকা শহর ঘুরে বেড়াবো। কর্মব্যস্ত ঢাকা শহরে তো আর ঘুরে বেড়ানো যায় না। তাই এই সুযোগে ঘুরে দেখব ঢাকা। ঢাকার মধ্যে আমার পছন্দের জায়গা গাজীপুর এবং পদ্মার পাড় মাওয়া। ঢাকার বাইরে বান্দরবান, কক্সবাজার আমাকে খুব টানে। আর যদি দেশের বাইরে বলেন, তবে মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া ঘুরতে ভালো লাগে।

চঞ্চল চৌধুরী

আমার ঈদের ব্যস্ততা প্রায় শেষ পর্যায়ে। গত দুই-আড়াই মাস ধরে ঈদের কাজ করছি। এর মধ্যে চারটি সাত পর্বের ও একটি দশ পর্বের নাটকে অভিনয় করেছি। এ ছাড়াও ১০ থেকে ১২টার মতো একক নাটক ঈদে প্রচার হওয়ার কথা রয়েছে। ঈদের ছুটিতে টিভি দেখব। এবার তো ঈদের সময়টাতে বিশ্বকাপ খেলা। ছোটবেলা থেকেই আমি আর্জেটিনার সাপোর্টার। ম্যারাডোনার খেলা দেখে মুগ্ধ হতাম। এখন মেসির খেলা দেখে মুগ্ধ হই। ব্রাজিলও আমার অনেক প্রিয় দল। নেইমারেরও ভক্ত আমি। যে কোনো ভালো দলের খেলা আমি উপভোগ করি।

শবনম বুবলী

সাধারণত ঈদের দিন বাসাতেই থাকা হয়। চেষ্টা করি দুই একটা রেসিপি নিজের হাতে রান্না করতে। আত্মীয়-স্বজন আসে। একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করি। আগে সালামি নিতাম। এখন সালামি দিতে হয়। সালামির ব্যাপারটা আমি এখনো উপভোগ করি। আর ঈদে নিজের অভিনীত সিনেমা থাকলে তো আনন্দ ডবল হয়ে যায়। এই ঈদে মুক্তি পাচ্ছে আমার অভিনীত দুটি ছবি। একটি আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘সুপার হিরো’ অন্যটি উত্তম আকাশ পরিচালিত ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্ল্যা মাইয়া’। নিজের ছবির প্রতি তো একটু বাড়তি আকর্ষণ থাকেই। নিজের ছবির বাইরেও আমি অন্যদের ছবি দেখার চেষ্টা করি।

জায়েদ খান

ঈদে আসলে দেশে থাকা হবে না। আগামী ১৫ জুন মালয়েশিয়া যাব। তাই দেশে আর ঈদ করতে পারছি না। দেশে থাকলে আমি অবশ্যই আমার জন্মস্থান পিরোজপুর যেতাম। সেখানে যেতেই আমি বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। নদী, সবুজ প্রকৃতি আমাকে খুব টানে। বিদেশের চাইতে দেশেই আমাকে বেশি আকর্ষণ করে। ছায়াশীতল কোনো গাছের নিচে বসলে পৃথিবীর সব সুখ আনন্দ আমাকে ঘিরে ধরে। যেটা বিদেশের মাটিতে আমি পাই না। তাই ঘোরাঘুরির ক্ষেত্রে আমার প্রথম পছন্দ বাংলাদেশ।

মারিয়া নূর

ঈদে কোথাও ঘুরতে যাওয়া হচ্ছে না, কারণ হলো বিশ্বকাপ ফুটবল। এবারের বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে টেলিভিশনে একটি বিশেষ শো করছি যার নাম ‘ফুটবল পাগল উইথ মারিয়া’। এটা নিয়েই এই ঈদে ব্যস্ত আমি। আর ঘুরে বেড়ানোর ক্ষেত্রে আমার পাহাড়, সবুজ-প্রকৃতি খুব ভালো লাগে। তাই বান্দরবান আমার খুব প্রিয় জায়গা। দেশের বাইরে হলে থাইল্যান্ড আমার পছন্দের জায়গা। ঈদের ছুটি নয়, যখনই অবসর পাই সেখানে যেতে চাই।

শবনম ফারিয়া

এবারের ঈদে সেভাবে ঘুরতে যাওয়ার কোনো প্ল্যান নেই। ঈদের পরের দিন আত্মীয়দের বাসায় যাব। বন্ধুদের নিয়ে ঘুরব। ঘোরাঘুরি আমার খুব পছন্দের। তাই যে কোনো নতুন জায়গায় যেতেই আমার ভালো লাগে। দেশের ভেতরে হলে আমার প্রথম পছন্দ কক্সবাজার, সিলেট, বান্দরবান। আর বিদেশ হলে ইউরোপ ট্রিপ আমার পছন্দের।

আরও সংবাদ...'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj