সড়ক দুর্ঘটনা : রংপুর ও গাইবান্ধায় নিহত ৫, আহত ২১

শুক্রবার, ১৫ জুন ২০১৮

কাগজ ডেস্ক : সড়ক দুর্ঘটনায় রংপুর ও গাইবান্ধায় ৫ জন নিহত এবং ২১ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে রংপুরে বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী ও গাইবান্ধায় দুই বাসের সংঘর্ষে ২ জন মারা গেছেন। এ সম্পর্কে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো প্রতিবেদন-

রংপুর : জেলার কাউনিয়া উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের চাপায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। কাউনিয়া থানার ওসি মামুনুর রশীদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। নিহতরা হলেন- রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার চরমর্নেয়া গ্রামের কালাম (১৬), সাক্কু (১৮) ও সোলায়মান আলী (৬৫)।

পুলিশ ও নিহতদের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত আবুল কালাম, সাক্কু ও সোলায়মান আলী গঙ্গাচড়া থেকে মোটরসাইকেলে চড়ে ঢাকাগামী ট্রেন ধরার জন্য কাউনিয়া যাচ্ছিল। কাউনিয়া রেলগেটের কাছে আসলে বিপরীত দিক থেকে আসা মায়মনা পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই দুজন ও কাউনিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো একজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ওসি জানান, ঘাতক বাসটি আটক করা হলেও ড্রাইভার ও হেলপার পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের করার প্রস্তুতি চলছে।

গাইবান্ধা : রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের বোয়ালিয়া এলাকায় একটি বেসরকারি চক্ষু হাসপাতালের সামনে বৃহস্পতিবার সকালে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন নিহত ও অন্তত ২১ জন আহত হয়েছে। নিহত দুজনের একজন জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার বকলগাড়ী গ্রামের মোজাহার আলীর ছেলে মেহেদী হাসান (৩৫)। আহতদের উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি আকতারুজ্জামান জানান, ঢাকা থেকে আসা নীলফামারীর সৈয়দপুরগামী খালেক এন্টারপ্রাইজের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে সকাল ৮টার দিকে রংপুর থেকে ঢাকাগামী মায়ের আঁচল পরিবহনের আরেকটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে দুজন নিহত ও অন্তত ২১ জন আহত হয়।

তিনি আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj