অনলাইনে ঈদ সদাই

রবিবার, ৩ জুন ২০১৮

দেশে ক্রমেই জনপ্রিয় হচ্ছে অনলাইনে কেনাকাটা। দেশের শীর্ষ কয়েকটি অনলাইন মার্কেটপ্লেসেরে সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে অনলাইন ভিত্তিক কেনাকাটা দ্বিগুণেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। দিনে এখন গড়ে অনলাইনে ২৫ হাজারের মতো অর্ডার হচ্ছে। বিশেষ করে প্রথাগত দোকানের চেয়ে অনলাইনে স্বাচ্ছন্দ্যে কেনাকাটার পাশাপাশি গ্রাহক আকৃষ্টে নানামুখী ছাড় ও উপহার থাকায় অনলাইনমুখী হচ্ছে ক্রেতারা। এমনিতেই বিভিন্ন পণ্যে ছাড়তো আছেই পাশাপাশি দাম পরিশোধে ক্রেডিট কার্ড, বিকাশ, আইপের মতো ডিজিটাল ওয়ালেট ব্যবহার করলে মিলছে বাড়তি সুবিধা। ঢাকায় সাধারণত অর্ডার প্লেসমেন্টের তিনদিনের মধ্যে ক্রেতার হাতে পণ্য পৌঁছে দিচ্ছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। ঢাকার বাইরে ডেলিভারিতে ক্ষেত্রবিশেষে সাতদিন পর্যন্ত সময় লাগছে। অধিকাংশ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ঈদের চারদিন আগে পণ্যের অর্ডার গ্রহণ বন্ধ করবে। ঝক্কি-ঝামেলা এড়িয়ে ক্লেশহীন ঈদের কেনাকাটা করতে রোজার শুরুতেই বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ঢুঁ মারতে শুরু করেছেন কর্মব্যস্ত মানুষ। ফেসবুকসহ ক্লাসিফায়েড এবং ই-কমার্স ওয়েব পোর্টালগুলোতে এখন চলছে জমজমাট কেনাকাটা। সেলফোন আর ইন্টারনেট থেকেই চলছে হরদম ঈদ সদাই। লিখেছেন ইমদাদুল হক

আজকের ডিল

প্রতি বছর আজকের ডিলে ক্যাশ ব্যাক অফার দেয়া হয়। ঈদের কেনাকাটায় ৩০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ব্যাক অফার চলছে। এর বাইরে একটা কিনলে আরেকটা ফ্রি, ফ্যাশন পণ্যে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় মিলছে পোর্টালটিতে। পণ্যমূল্য পরিশোধে ভিসা ও মাস্টারকার্ড ব্যবহারে ২০ শতাংশ ছাড় এবং বিকাশের ক্ষেত্রে ২০ শতাংশ ক্যাশ ব্যাক সুবিধাও রয়েছে।

আজকের ডিলে রয়েছে পাঁচ হাজার মার্চেন্টের দুই লাখ পণ্য। ছেলে, মেয়ে ও বাচ্চাদের কেনাকাটা, ব্যাগ ও পার্স, গৃহস্থালি সামগ্রী, গহনা ও ঘড়ি, মোবাইল ও ট্যাব, গেজেটস, জুতা-বেল্ট ও ওয়ালেট, কসমেটিক্স ও পারফিউমসহ ৩৩টি ক্যাটাগরিতে সাজানো হয়েছে বাহারি পণ্যের পসরা। আছে রমজানের আয়োজন ও ঈদের পসরা নিয়ে বিশেষ আয়োজন। একই সঙ্গে বাড়তি ক্রেজ হিসেবে যুক্ত হয়েছে বিশ্বকাপের জার্সি ও পতাকা। আছে ডিজিটাল কোরআন শরিফ, জায়নামাজও। আর এসবই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে অর্ডার প্লেস করা যাচ্ছে খুব সহজে। অ্যাপের মাধ্যমে ফরমায়েশ করে ঢাকার বাইরেও কুমিল্লা, খুলনা, ময়মনসিংহ, গাজীপুর, সাভার ও নারায়াণগঞ্জে ফ্রি হোম ডেলিভারি করছে।

আজকের ডিলপ্রধান নির্বাহী ফাহিম মাশরুর বলেন, ঈদ এবং বিশ্বকাপ ফুটবল এই দুই মিলে এবার অনলাইন ই-কমার্স খাতটি দারুণ চাঙ্গা। গ্রাহকের প্রয়োজন মেটাতে আজকের ডিল ডটকমও নানা প্রণোদনা নিয়ে এসেছে। গড়ে দিনে দুই হাজারের মতো অর্ডার হচ্ছে। এর মধ্যে ফ্যাশন আইটেম ও শাড়ি বিক্রি হয় সবচেয়ে বেশি। পোর্টালটির এখন গড় ক্রেতা পাঁচ লাখের মতো। আর ঈদ এলেই এ সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে যায়। ফাহিম আরো বলেন, ইতিমধ্যে আমেরিকার জি-টক অনলাইনের মাধ্যমে আজকের ডিল থেকে আত্মীয়স্বজনের জন্য ঈদের উপহার পাঠাচ্ছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

বাগডুম

ফ্যাশনপ্রিয়দের মধ্যে ক্রেজ ছড়াচ্ছে বাগডুম ঈদ কালেকশন। সাপ্তাহিক ডিল, হ্যাপি আওয়ারের মতো অফার দিয়ে গ্রাহকের দৃষ্টি কাড়ছে। ঈদের দেশীয় ঐতিহ্যে ঘর সাজানোর সুযোগ করে দিতে গ্রামীণ নারীদের তৈরি নকশি বেড কভার, ভ্যানিটি ব্যাগ, পাপস, ঝুড়ি ইত্যাদি নানা পণ্য। আছে মেয়েদের হাল ফ্যাশনের সব শাড়ি, কামিজ, ছেলেদের পাঞ্জাবি, শার্ট, প্যান্ট, টি-শার্ট, জুয়েলারি ও লাইফস্টাইল পণ্য। বাগডুম ডটকমে রয়েছে বেশ কয়েকটি অফার। এই অফারগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিকাশ পেমেন্টে ২০ শতাংশ ইনস্ট্যান্ট ক্যাশ ব্যাক এবং ভিসা কার্ডে মূল্য পরিশোধে ১০ শতাংশ ডিসকাউন্ট ও জিপি স্টার গ্রাহকদের জন্য অতিরিক্ত আট শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। ডিজিটাল কোরআন, জায়নামাজ ও আতরসহ রোজার পণ্যে রমাদান উইক অফারে ৬৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় ছাড়াও দুই হাজার টাকার ওপর পণ্য খরিদে ৩০০ টাকার ফ্রি ভাউচার দেয়া হচ্ছে।

পিকাবু

ঈদ উপলক্ষে নতুন সাজে সেজেছে পিকাবু ডটকম। পিকাবু ডটকমে মোবাইলফোন বেশি বিক্রি হয়ে থাকে। মোবাইলফোনের পাশাপাশি পিকাবু ডটকম থেকে কেনা যাবে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স পণ্য, কসমেটিক্স প্রভৃতি। পিকাবুর মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এডিসন গ্রুপের পরিচালক আশরাফুল হক জানান, ঈদ উপলক্ষে যারা মোবাইলফোন কিনতে চাচ্ছেন তারা পিকাবু ডটকমে ভিজিট করে দেখতে পারেন। শুধু পিকাবুতেই পাওয়া যাচ্ছে এমন কয়েকটি নামি ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ রয়েছে পোর্টালটিতে। বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করলে বাড়তি ২০ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশ ব্যাক তো আছেই। সঙ্গে আছে ক্রেডিট কার্ডে বিনা সুদে কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুবিধা।

প্রিয়শপ

প্রতিবারের মতো মাসব্যাপী ‘অনলাইন ঈদ শপিং ফেস্টিভ্যাল’-এর আয়োজন করেছে প্রিয়শপ। ঈদ উপলক্ষে নানা অফারে সাজানো হয়েছে এই ফেস্টিভ্যাল। চাঁদ রাত পর্যন্ত চলবে অনলাইনে কেনাকাটার এ উৎসব। উৎসব উপলক্ষে কেনাকাটায় মাস্টারকার্ডে মূল্য পরিশোধে লন্ডন ভ্রমণের অফার ছাড়াও বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার ২০ শতাংশ তাৎক্ষণিক ক্যাশ ব্যাক, ১০ শতাংশ মূল্য ছাড় সুবিধা দেয়া হচ্ছে। এর বাইরে মিলছে কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ। ক্রেডিট কার্ডে মূল্য পরিশোধে পাঁচ হাজার টাকার শপিং করে মাসিক কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুবিধা নিতে পারছেন ক্রেতারা। প্রিয়শপ ডটকমের নির্বাহী কর্মকর্তা আশিকুল আলম খান বলেন, ঈদের আনন্দকে আরো বাড়িয়ে তুলতে আমরা দ্রুত কোয়ালিটি পণ্য ডেলিভারির ব্যবস্থা করছি। এ ছাড়া চলছে বিভিন্ন পণ্যে সর্বোচ্চ ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট।

চালডাল

চলতি রমজান মাস এবং আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে দেশের শীর্ষ অনলাইন গ্রোসারি শপ চালডাল ডটকমে চলছে নানা ধরনের বিশেষ অফার। ৭৫টিরও বেশি একক বা বান্ডেল পণ্যের উপর নানা ধরনের অফারসহ রোজায় স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রি এবং স্বল্প সময়ে হোম কিংবা অফিস ডেলিভারি দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

রমজানে রয়েছে রমজানের সেহরি ও ইফতারের জন্য বিশেষ সমাহার। রামাদান ক্যাটাগরিতে ক্লিক করে সকল প্রয়োজনীয় পণ্যে পাওয়া যাবে এক জায়গায়। রয়েছে রূহ আফজা, ট্যাং, খেজুর, বিভিন্ন ধরনের জুস, দই, চিড়া, পেড়া সন্দেশ, রসমালাই, বুট, বেসন, মশলাপাতিসহ সবকিছু। রাস্তার জ্যাম ও রমজানের ক্লান্তি এড়িয়ে সময় বাঁচিয়ে সহজেই কেনাকাটা করতে প্রতিষ্ঠানটি এমন অপশন চালু করেছে।

চালডাল ডটকমের হেড অব গ্রোথ ওমর শরীফ ইবনে হাই বলেন, রমজানে সাধারণত বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম সব সময় বাড়তি থাকে, ফলে ভোগান্তিতে পড়েন ক্রেতারা। বিশেষ করে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর শহরবাসীরা যাদের সাশ্রয় এবং সুবিধা উভয়ই প্রয়োজন তাদের কথা মাথায় রেখে চালডাল রমজানে কোনো পণ্যের দাম বাড়াচ্ছে না। সারা রমজানব্যাপী মাসিক কিংবা খুচরা বাজারের ক্ষেত্রেও সহনীয় দামে নিত্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের পণ্য বিক্রি করবে চালডাল। ২ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকার বাজারে থাকছে ১০০ থেকে ৫০০ টাকার ডিসকাউন্ট। চালডাল বর্তমানে ঢাকার ৫০টি এলাকাতে ৫ হাজারেরও অধিক পণ্য ডেলিভারি দিচ্ছে ২০ টাকা ডেলিভারি চার্জের বিনিময়ে। ক্রেতাদের জন্যে রমজান, ঈদ কিংবা দৈনন্দিন সব অফার নির্বাচনে সহজ করতে ওয়েবসাইটে ‘অফারস’ নামে আলাদা সেকশন আছে।

দারাজ

এই ঈদে অ্যাপ থেকে অর্ডার করলে যে কোনো কেনাকাটায় ৫০০ টাকা ছাড় দিচ্ছে স¤প্রতি চীনের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবার কাছে মালিকানা হস্তান্তর করা বাংলাদেশের ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম দারাজ। একই সঙ্গে দেশজুড়ে পণ্য ফ্রি ডেলিভারি দিচ্ছে।

ঈদের কেনাকাটায় ছাড় দিয়েছে ৬৭ শতাংশ পর্যন্ত। বিকাশ ও সিটি ব্যাংকের কার্ডে মূল্য পরিশোধে দেয়া হচ্ছে অতিরিক্ত ২০ শতাংশ ছাড়। ঈদ এক্সক্লুসিভ কালেকশনে রয়েছে অ্যাপেক্স, বাটা, গ্রামীণচেক, গ্রামীণ ইউনিক্লো, ফরচুনা, ওটু, স্ট্যাসি, নিপুণ, লা রিভ, জ্যোতি, বাংলার মেলা, ওরিয়নসহ ২৫টি ব্র্যান্ডের পোশাক-প্রসাধনী। ঈদের কালেকশনে আছে আল হারমাইনের আতর। পাশাপাশি জাকাতের শাড়ি ও লুঙ্গির পসরা রয়েছে এই অনলাইন ই স্টোরে। ৩০০ টাকা থেকে শুরু করে হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে এই জাকাতের কাপড়। ঈদের আগ পর্যন্ত সপ্তাহে ফ্ল্যাশ সেল অফারে সর্বোচ্চ ছাড় দেয়া হয়।

দারাজ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, গত ১৭ মে থেকে শুরু হয়েছে ফ্যাশন অ্যান্ড হোম অ্যাপলায়েন্সে বিশেষ ছাড়। ২৫ মে থেকে শুরু হয়েছে মোবাইল উইকে। এখানে নামি ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনে ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছি। ৩০ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে চূড়ান্ত ছাড়। সে সময় ফ্যাশনে ৭৫ শতাংশ এবং টিভি-এসিতে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি বিকাশে পণ্যমূল্য পরিশোধে ২০ শতাংশ ক্যাশ ব্যাক করা হচ্ছে।

ডট নেট'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj