দারিদ্র্য বিমোচনে প্রযুক্তির উন্নয়ন করছে আলিবাবা : জ্যাক মা

রবিবার, ৩ জুন ২০১৮

চীন অর্থনৈতিকভাবে এগিয়েছে। তবে দেশটির অনেক মানুষ এখনো দারিদ্র্যের কবল থেকে মুক্তি পায়নি। এসব মানুষকে স্থায়ীভাবে দারিদ্র্যমুক্ত করার অঙ্গীকার করেছে ই-কমার্স জায়ান্ট আলিবাবা। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী চেয়ারম্যান জ্যাক মা বলেছেন, চীনের দারিদ্র্য বিমোচনে প্রযুক্তি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। আলিবাবা দারিদ্র্য বিমোচনে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াচ্ছে।

স¤প্রতি চীনের গুইঝু প্রদেশে অনুষ্ঠিত ‘চায়না ইন্টারন্যাশনাল বিগ ডাটা ইন্ডাস্ট্রি এক্সপো’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন জ্যাক মা। বক্তৃতায় তিনি বলেন, চীন থেকে দারিদ্র্য দূর করতে হলে সম্পদের ওপর ভিত্তি করে পদক্ষেপ নিতে হবে।

অপেক্ষাকৃত পিছিয়ে পড়া অঞ্চলগুলোর শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসম্পদের অসম বরাদ্দে পরিবর্তন আনতে হবে। জ্যাক মা বলেন, এখন তথ্য ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে চীনা কৃষকরা তাদের জমি থেকে বেশি আয়ের সুযোগ পাচ্ছেন।

প্রসঙ্গত, আলিবাবার অনলাইন সেবা তাওবাও প্লাটফর্ম ব্যবহার করে কৃষক তাদের কৃষিপণ্য বিক্রির সুযোগ পেয়ে আসছেন।

চীনের ন্যাশনাল ব্যুরো অব স্ট্যাটিসটিকসের (এনবিএস) তথ্য বলছে, গত বছর চীনের ১ কোটি ২৯ লাখ ৯০ হাজার মানুষ দারিদ্র্য থেকে মুক্তি পেয়েছে। তবে দেশটির গ্রামীণ এলাকার প্রায় ৩ কোটি ৬০ হাজার মানুষ এখনো দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করছে।

যাদের মানুষের মাথাপিছু আয় বছরে ৩ হাজার ইউয়ানের কম, চীন সাধারণত তাদের দারিদ্র্য বলে বিবেচনা করে। ২০২০ সালের মধ্যে চীন সরকার দারিদ্র্যের হার শূন্যে নামিয়ে আনার অঙ্গীকার করেছে।

একই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আলিবাবা ক্লাউড কম্পিউটিংয়ের প্রেসিডেন্ট হু শাওমিং। তিনি বলেন, চীনের সমস্যা সমাধানে প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

হু শাওমিং জানান, আগামী তিন বছরে গুইঝু প্রদেশের আট হাজার শিক্ষার্থী ও প্রযুক্তিসংশ্লিষ্ট পেশাজীবীকে তারা প্রশিক্ষণ দেবেন, যাতে এসব ব্যক্তি আলিবাবার ব্যবসায় যুক্ত হতে পারেন ও তাদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়। গত ডিসেম্বরে ই-কমার্স জায়ান্টটি ১ হাজার কোটি ইয়ান (১৫০ কোটি ডলার) মূল্যের আলিবাবা পোভার্টি রিলিফ ফান্ড গঠনের ঘোষণা দেয়। আলিবাবা জানায়, তাদের দারিদ্র্য বিমোচন কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও পরিবেশগত অবস্থার উন্নয়ন। এছাড়া যেসব এলাকায় দরিদ্র মানুষের সংখ্যা বেশি, তারা যেন অনলাইনে আরো বেশি পণ্য বিক্রি করতে পারে, তাও এ কর্মসূচির মধ্যে পড়ে। সূত্র: ইন্টারনেট

:: ডটনেট ডেস্ক

ডট নেট'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj