বিএনপিকে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হওয়ার পরামর্শ কাদেরের

রবিবার, ১১ মার্চ ২০১৮

কাগজ প্রতিবেদক, গাজীপুর : সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আন্দোলনের পাঠ বিএনপির চুকে গেছে। আমি বিএনপিকে পরামর্শ দেব নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হতে। বিএনপিকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দেয়ার কোনো খায়েশ আওয়ামী লীগের নেই, আমাদের সরকারেরও নেই। নিবন্ধিত দল হিসেবে নির্বাচন করবে এমন অধিকার তাদের আছে। এখন খালেদা জিয়াকে ছেড়ে দেয়ার বিষয়টি আমাদের হাতে নেই। লিগ্যাল ব্যাটলের মাধ্যমে খালেদা জিয়া বের হলে এখানে আমাদের কোনো বক্তব্য নেই।

গতকাল শনিবার সকালে গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ৪ লেনে উন্নীতকরণের কাজ পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনকে আন্দোলনের মাধ্যমে জেল থেকে মুক্ত করবেন, সেই বাস্তবতা বাংলাদেশে নেই। জনগণ আন্দোলন করে তাকে মুক্ত করবে সেই বাস্তবতা দেশে নেই- এটা বিএনপিকে বুঝতে হবে। খালেদা জিয়া গ্রেপ্তার হওয়ার পর তারা ভেবেছিল বাংলাদেশ আন্দোলনে উত্তাল হবে। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি।

মন্ত্রী বিএনপির চলমান আন্দোলনের সমালোচনা করে বলেন, আদালতের সিদ্ধান্তের বিপরীতে বিএনপি যে আন্দোলন করছে, সেটি আদালত অবমাননার। আদালতের রায়ে তাদের নেত্রী বেগম জিয়া দণ্ডিত হয়েছেন, আদালতের বিরুদ্ধে তো তারা আন্দোলন করতে পারেন না। সেটিও তাদের অন্যায়, পুলিশের সঙ্গে তারা সংঘাত করতে চান, রাস্তা বন্ধ করে অনশন করবেন এটি কোনো আইনসিদ্ধ বিষয় নয়।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে সড়ক ও জনপথের ঢাকা বিভাগীয় প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, প্রকল্প পরিচালক মো. ইসহাকসহ সড়ক ও জনপথের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী মহাসড়ক প্রশস্তকরণের কাজে সংশ্লিষ্টদের দ্রুত সময়ে কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন। আগামী রমজান মাসে ঈদে ঘরমুখো মানুষ বাড়ি ফিরতে বিড়ম্বনায় পড়বেন না বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj