আত্রাইয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

রবিবার, ১১ মার্চ ২০১৮

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি : উপজেলায় ইসলামী জলসাকে কেন্দ্র করে দুইপক্ষের সংঘর্ষে ১ জন নিহত এবং ৭ জন আহত হয়েছেন। ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নওদাপাড়া গ্রামে নওদাপাড়া হামিদিয়া নূরানী হাফেজিয়া মহিলা মাদ্রাসার নতুন ও পুরনো কমিটির মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলে আসছে বেশ কিছু দিন ধরে। গত শুক্রবার ওই মাদ্রাসায় ইসলামী জলসা অনুষ্ঠানের প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করে নতুন কমিটি। পুরনো কমিটির কিছু লোকজন এর বিরোধিতা করে সেখানকার ডেকোরেশনের আসবাবপত্র ভাঙচুর শুরু করেন। এ সময় জলসার পক্ষের লোকজন বাধা দিতে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে নওদাপাড়া গ্রামের আলাবক্স, তার ছেলে শাহিন, কাদিরের ছেলে জাভেদ, সুরুজ আলীর ছেলে আবু বক্কর ছিদ্দিক, নজিবর মণ্ডলের ছেলে আবুল মণ্ডল, আবুলের ছেলে শান্ত, আমজাদের ছেলে জাহিদুলসহ ৮ জন আহত হন। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে শাহিনের অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর হলে গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহিন মারা যান।

এদিকে শাহিনের মৃত্যুর খবর পৌঁছলে নওদাপাড়া গ্রামে আবারো উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে আত্রাই থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আত্রাই থানার ওসি মোবারক হোসেন বলেন, শাহিন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবুল মণ্ডলের স্ত্রী রওশন আরাকে (৩৭) আটক এবং ৩ জনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশি নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj