চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির তিন ভেন্যু

বৃহস্পতিবার, ১ জুন ২০১৭

একদিকে সিয়াম সাধনার মাস রমজান অন্যদিকে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উন্মাদনা। ক্রিকেট অনুরাগীরা রোজা পালনের সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচ উপভোগের সুযোগ হাতছাড়া করতে নারাজ। কারণ, চার বছর পর আবারো অনুষ্ঠিত হবে নন-আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। এবার ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির অষ্টম আসর বসছে। ১ থেকে ১৮ জুন অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ১৫টি ম্যাচ দুই দেশের তিনটি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে। ভেন্যু তিনটি হচ্ছে কেনিংটন ওভাল, এজবাস্টন ও কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন। এর আগেও দুবার চ্যাস্পিয়ন্স ট্রফির আসর বসেছে ইংল্যান্ডে। ২০০৪ ও ২০১৩ সালের সেই দুটি টুর্নামেন্টেও ক্রিকেটের ‘মক্কা’ খ্যাত লর্ডসে কোনো ম্যাচ ছিল না। এবারো ভেন্যু তালিকায় লর্ডস নেই। উদ্বোধনী ম্যাচ ও ফাইনালসহ মোট ৬টি ম্যাচ হবে কেনিংটন ওভালে। একটি সেমিফাইনালসহ ৫টি ম্যাচ হবে এজবাস্টনে। একটি সেমিফাইনালসহ কার্ডিফে হবে মোট ৪টি ম্যাচ।

কেনিংটন ওভাল

ইংল্যান্ডে যে কয়টি স্টেডিয়াম রয়েছে তার মধ্যে লন্ডনে অবস্থিত কেনিংটন ওভাল অন্যতম। যুক্তরাজ্যের রাজধানী এবং পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম শহর লন্ডন। টেমস নদীর তীরে এটি অবস্থিত । প্রায় ৭০ লাখ লোকে বসতি এই লন্ডন সপ্তদশ শতক থেকেই ইউরোপে তার প্রথম স্থান বজায় রেখে আসছে। উনবিংশ শতাব্দীতে এটিই ছিল বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শহর। কারণ, তখন বিশ্বের উল্লেখযোগ্য সব স্থানই ছিল ব্রিটিশ রাজত্বের অধীন আর লন্ডন ছিল সেই রাজত্বের রাজকীয় ও অর্থনৈতিক কেন্দ্র। বর্তমান যুগেও লন্ডন পৃথিবীর অন্যতম প্রধান অর্থ-বাণিজ্য ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকে। ১ জুন উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ম্যাচটি এই কেনিংটন ওভালে অনুষ্ঠিত হবে। কেনিংটন ওভাল বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী স্টেডিয়ামগুলোরই একটি। দক্ষিণ লন্ডনের কেনিংটনে এই স্টেডিয়ামটি প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৮৪৫ সালে। ইংল্যান্ডের মাটিতে প্রথম টেস্ট ম্যাচটি হয়েছিল এই মাঠেই। এই মাঠে প্রথম ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচটি হয় ১৯৭৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর।

সেই থেকে এ পর্যন্ত ৬০টি ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে এই মাঠে। টেস্ট হয়েছে ৯৯টি। টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হয়েছে ১৬টি। ৬০টি ওয়ানডের মধ্যে আছে ২০০৪ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল। ২০০৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বরের সেই ফাইনালে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মাইকেল ভনের ইংল্যান্ডকে কাঁপিয়ে নাটকীয়ভাবে শিরোপা জিতে নিয়েছিল ব্রায়ান লারার ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এবার কেনিংটন ওভালে ফাইনালসহ ছয়টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। সাড়ে ২৪ হাজার আসন বিশিষ্ট এ স্টেডিয়ামে ৫ জুন মাশরাফিরা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে।

এজবাস্টন, বার্মিংহাম

ইংল্যান্ডের প্রতিটি স্টেডিয়ামই নয়নাভিরাম। ১৮৮২ সালে প্রতিষ্ঠিত বার্মিংহামের এজবাস্টন ক্রিকেট গ্রাউন্ড যেন

একটু বেশি নয়নাভিরাম। এ স্টেডিয়ামটি মূলত ইংলিশ কাউন্টি দল ওয়ারউইকশায়ারের হোম ভেন্যু। এ স্টেডিয়ামটিতে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় ১৯০২ সালে।

২৫ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতা সম্পন্ন যে স্টেডিয়ামে ২০১৩ সালে সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে হেরে শিরোপা রানার্সআপ হয় স্বাগতিক ইংল্যান্ড। দুঃখজনক হলো ২০০৪ সালের মতো এবারো জিততে জিততে হেরে গিয়েছিল ইংলিশরা।

এবার এজবাস্টনে দ্বিতীয় সেমিফাইনালসহ ৫টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ৪ জুনই মুখোমুখি হবে দুই বৈরী প্রতিবেশী ভারত-পাকিস্তান। ১০ জুন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড।

সোফিয়া গার্ডেন

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন স্টেডিয়ামটি টাইগারদের অন্যতম লাকি ভেন্যু। ২০০৫ সালে কার্ডিফে শক্তিধর অস্ট্রেলিয়াকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ১৯৬৭ সালে প্রতিষ্ঠিত স্টেডিয়ামে খুবই ছোট। দর্শক ধারণক্ষমতা মাত্র ১৫ হাজার ৬৪৩। কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন স্টেডিয়ামটি ওয়েলসে অবস্থিত। এ বছরের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে এই কার্ডিফেই। রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্তাসের মধ্যকার ৩ জুনের সেই ম্যাচের কথা মাথায় রেখেই সোফিয়া গার্ডেনে মাত্র ৪টি ম্যাচ রেখেছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজকরা। মারকুটে ওপেনার তামিম ইকবাল রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্তাসের মধ্যকারটি মাঠে বসে দেখার জন্য টাইগার কোচের কাছ থেকে একদিনের ছুটি নিয়েছেন। লাকি ভেন্যু কার্ডিফে এবার টাইগাররা এবারের গ্রুপ পর্বে ৯ জুন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে।

এই মাঠ প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় ১৯৯৯ সালের ২০ মে। ওয়ানডে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের সেই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। সেই থেকে এ পর্যন্ত মাত্র ১৯টি ওয়ানডে হয়েছে। ইংলিশ কাউন্টি দল গø্যামারগনের হোম ভেন্যু হিসেবে পরিচিত এই মাঠে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি হয়েছে সমান ৩টি করে। ম আপন আকাশ

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি-২০১৭'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj